রাজ্যপালের কাছে নালিশ মোর্চার

রাজ্যপালের কাছে নালিশ জানাল গোর্খা জন মুক্তি মোর্চা। গতকাল মোর্চার চার প্রতিনিধি  রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে  রাজ্য সরকারের  বিরুদ্ধে  অভিযোগ জানান। মোর্চার অভিযোগ, জিটিএ এলাকায় তাদের না জানিয়েই রাজ্য সরকার কাজ করছে।এতে জিটিএর স্বাধীনতা ক্ষুন্ন হচ্ছে। মোর্চা জানিয়েছে, এমনটা চলতে থাকলে সরকারের সঙ্গে তাদের সম্পর্ক ভালো থাকবে না। রাজ্যসরকারের সঙ্গে মোর্চার সম্পর্ক যে তলানিতে ঠেকেছে তা মালুম হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রীর পাহাড় সফরেই। সেই সময়েই মুখ্যমন্ত্রীর পাট্টা বিলি নিয়ে সরব হয়েছিলেন মোর্চা সুপ্রিমো বিমল গুরুং।

Updated: Feb 16, 2013, 10:16 AM IST

রাজ্যপালের কাছে নালিশ জানাল গোর্খা জন মুক্তি মোর্চা। গতকাল মোর্চার চার প্রতিনিধি  রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে  রাজ্য সরকারের  বিরুদ্ধে  অভিযোগ জানান। মোর্চার অভিযোগ, জিটিএ এলাকায় তাদের না জানিয়েই রাজ্য সরকার কাজ করছে।এতে জিটিএর স্বাধীনতা ক্ষুন্ন হচ্ছে। মোর্চা জানিয়েছে, এমনটা চলতে থাকলে সরকারের সঙ্গে তাদের সম্পর্ক ভালো থাকবে না। রাজ্যসরকারের সঙ্গে মোর্চার সম্পর্ক যে তলানিতে ঠেকেছে তা মালুম হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রীর পাহাড় সফরেই। সেই সময়েই মুখ্যমন্ত্রীর পাট্টা বিলি নিয়ে সরব হয়েছিলেন মোর্চা সুপ্রিমো বিমল গুরুং।
এবার  রাজভবনে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করলেন মোর্চার প্রতিনিধিরা। জিটিএ এলাকায় পাট্টা বিলি, পরিবহণ, অনগ্রসর উন্নয়ন নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে নালিশ জানালেন মোর্চা প্রতিনিধিরা।
দার্জিলিঙে প্রস্তাবিত কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভবিষ্যত নিয়েও তাঁদের আশঙ্কার কথা রাজ্যপালকে জানালেন মোর্চা প্রতিনিধিরা।
মোর্চাকে চাপে রাখতে রাজ্য সরকার লেপচা উন্নয়ন পর্ষদের কথা ঘোষণা করে। বিরোধিতায়  পাহাড়ে বারো ঘন্টার বনধ করে মোর্চা। পাহাড়ে গিয়ে কালো পতাকা দেখতে হয় উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী গৌতম দেবকে। এই আন্দোলনের রেশ ধরেই রাজ্য সরকারের ওপর চাপ বাড়াতে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করল মোর্চা।