গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মেটাতে সংগঠনের দায়িত্বে মুকুল

পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে উত্তর ২৪ পরগনার সাংগঠনিক দায়িত্বে মুকুল রায়কে বসাতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। শুক্রবার, জেলার সাংসদ-বিধায়ক এবং ব্লক সভাপতিদের নিয়ে এক বিশেষ বৈঠক করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বাসভবেনই বৈঠক হবে। রাজনৈতিক মহলের মতে, দলের সংগঠন মজবুত করার পাশাপাশি গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মেটাতে নেতাদের নির্দেশ দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Updated: Nov 30, 2012, 09:55 AM IST

পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে উত্তর ২৪ পরগনার সাংগঠনিক দায়িত্বে মুকুল রায়কে বসাতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। শুক্রবার, জেলার সাংসদ-বিধায়ক এবং ব্লক সভাপতিদের নিয়ে এক বিশেষ বৈঠক করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বাসভবেনই বৈঠক হবে। রাজনৈতিক মহলের মতে, দলের সংগঠন মজবুত করার পাশাপাশি গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মেটাতে নেতাদের নির্দেশ দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।
জেলায় ক্রমশ বেড়ে চলা গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, সিন্ডিকেট ব্যবসা নিয়ে তৃণমূলের গোষ্ঠী লড়াই ঠেকাতে এবার আসরে নামলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কালীঘাটের বাসভবনে উত্তর চব্বিশ পরগনার বিধায়ক, সাংসদ এবং ব্লক সভাপতিদের ডেকে পাঠানো হয়েছে। পঞ্চায়েতের আগে দলীয় সংগঠন ঢেলে সাজাতেই তড়িঘড়ি এই উদ্যোগ।
গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মিটিয়ে সংগঠনকে মজবুত করার জন্য নেতাদের নির্দেশ দিতে চলেছেন তৃণমূল নেত্রী। উত্তর ২৪ পরগনায় গ্রাম পঞ্চায়েতের সংখ্যা ২০০ও বেশি। পঞ্চায়েত সমিতির সংখ্যা বাইশটি। অন্যদিকে মুর্শিদাবাদের পর সংখ্যালঘু মানুষজনের বসবাসের নিরিখে এই জেলা রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। ফলে পঞ্চায়েতের আগে এই জেলা নিয়ে বেশ চিন্তিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল সূত্রে খবর, সংগঠন আরও মজবুত করতে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক মুকুল রায়কে জেলার বিশেষ দায়িত্বে আনা হচ্ছে । পূর্ণেন্দু বসু, সৌগত রায়, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, এরকমই অন্তর্দলীয় গোষ্ঠীকোন্দল থেকে দলকে চাঙ্গা করতেই এই বিশেষ বৈঠক মুখ্যমন্ত্রী ডেকেছেন বলে তৃণমূল সূত্রে খবর।