রাতের রেলে বিভীষিকার মূল শিকার মহিলারাই

রাতের রেলে নিরাপত্তার ছবিটা ফের বেআব্রু করে দিল বৃহস্পতিবার রাতের একটি ঘটনা। বিধাননগর রোড ও শিয়ালদার মাঝে চলন্ত ট্রেনে মহিলা কামরার এক যাত্রীর গলায় চপার চালিয়ে নির্বিঘ্নে পালাল দুই দুষ্কৃতী। গলায় ষোলোটি সেলাই নিয়ে এই মুহূর্তে নার্সিংহোমে ভর্তি তারাতলার বাসিন্দা পুনম মাখানি।

Updated: May 26, 2013, 09:42 PM IST

রাতের রেলে নিরাপত্তার ছবিটা ফের বেআব্রু করে দিল বৃহস্পতিবার রাতের একটি ঘটনা। বিধাননগর রোড ও শিয়ালদার মাঝে চলন্ত ট্রেনে মহিলা কামরার এক যাত্রীর গলায় চপার চালিয়ে নির্বিঘ্নে পালাল দুই দুষ্কৃতী। গলায় ষোলোটি সেলাই নিয়ে এই মুহূর্তে নার্সিংহোমে ভর্তি তারাতলার বাসিন্দা পুনম মাখানি। 
বৃহস্পতিবার রাতে সল্টলেক সিটি সেন্টারে শোরুম বন্ধ করে বাড়ি ফিরছিলেন তারাতলার বাসিন্দা পুনম মাখানি। অন্য দিনের মতোই উঠেছিলেন রাত নটা পাঁচের শিয়ালদাগামী লোকালে। রাত নটা পাঁচের লোকালে লুকিয়ে ছিল দুষ্কৃতীরা। হঠাত্ চড়াও হয়ে চপার বসিয়ে দেয় পুনমের গলায়। এরপরই তাঁকে ধাক্কা মারে দুষ্কৃতী। পার্স ছুঁড়ে দেন পুনম। তারপর ট্রেন থেকে নেমে যায় দুষ্কৃতীর।
ট্রেন থেকে লাফিয়ে নামেন পুনম। বাঁচার মরিয়া চেষ্টা করলেও তাঁকে কেউ সাহায্য করেননি বলে অভিযোগ করেছেন পুনম। এমনকী সাহায্য করেনি জিআরপিও। অবশেষে স্টেশন মাস্টারের সাহায্যে হাসপাতালে ভর্তি হন গুরুতর জখম পুনম।