`নো-রিফিউজাল ট্যাক্সি`তেই বেশী `রিফিউজড` শহরবাসী!

ট্যাক্সি রিফিউজালের দৌরাত্ম ঠেকাতে সম্প্রতি শহরে ২ হাজার নো-রিফিউজাল ট্যাক্সির সূচনা করেছেন পরিবহণমন্ত্রী। কার্যক্ষেত্রে সেই ট্যাক্সি যাত্রীদের কাজে লাগছে না। শহরের হাতে গোনা কিছু রাস্তা ছাড়া অন্যত্র যেতেই চাইছেন না চালকরা। কারণ, ট্যাক্সিগুলির কোনও রুট পারমিট নেই।

Updated: Jan 20, 2014, 10:56 PM IST

ট্যাক্সি রিফিউজালের দৌরাত্ম ঠেকাতে সম্প্রতি শহরে ২ হাজার নো-রিফিউজাল ট্যাক্সির সূচনা করেছেন পরিবহণমন্ত্রী। কার্যক্ষেত্রে সেই ট্যাক্সি যাত্রীদের কাজে লাগছে না। শহরের হাতে গোনা কিছু রাস্তা ছাড়া অন্যত্র যেতেই চাইছেন না চালকরা। কারণ, ট্যাক্সিগুলির কোনও রুট পারমিট নেই।

ঢাকঢোল পিটিয়ে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে ২ হাজার নো রিফিউজাল ট্যাক্সির সূচনা করেছেন পরিবহণমন্ত্রী। নীল-সাদা রঙের এসি ও নন-এসি ট্যাক্সি যাত্রী প্রত্যাখ্যান না করে আমজনতাকে সুবিধা দেবে বলে দাবি ছিল মন্ত্রীর। কার্যক্ষেত্রে সেই দাবি পূরণ করা যাচ্ছে না। কারণ নতুন ট্যাক্সিগুলির কোনও রুট পারমিট নেই। রাস্তায় ধরা পড়লে পুলিস কেসের ভয়ে তাই ট্যাক্সিগুলি রাস্তার ধারে দাঁড় করিয়ে রাখছেন চালকরা। ফলে তা যাত্রীদের কোনও কাজে লাগছেনা।

পরিবহণ দফতর, আরটিও এবং ঋণদাতা ব্যাঙ্কগুলির মধ্যে সমন্বয়ের অভাবে গণপরিবহণের এই নয়া সংযোজন মানুষের কাজে লাগছে না।