নোনাডাঙায় আন্দোলন ভাঙার অভিযোগ পুরমন্ত্রীর বিরুদ্ধে

Last Updated: Saturday, December 22, 2012 - 20:14

নোনাডাঙায় বস্তি উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা আন্দোলনকে ঘিরে রাজ্যসরকারের সঙ্গে একাধিকবার সরাসরি বিরোধে জড়িয়ে পড়েছেন আন্দোলোনকারীরা। তাঁরা বেশ কয়েকবার অভিযোগ করেছেন অপ্রত্যক্ষ ভাবে সরকারের পক্ষ থেকে আন্দোলন ভাঙার চেষ্টা হয়েছে। এবার আন্দোলনকারীদের একাংশকে ফ্ল্যাট দেওয়ার কথা ঘোষণা করে সরাসরি আন্দোলন ভাঙতে নেমে পড়ল রাজ্য সরকার। আন্দোলনে সামিল একাধিক সংগঠনের অভিযোগ তেমনটাই। শনিবার নোনাডাঙায় গিয়ে আন্দোলনকারী ৭৮টি পরিবারকে ফ্ল্যাট দেওয়ার ঘোষণা করেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এতেই সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন ভাঙার চেষ্টার অভিযোগ করেছেন আন্দোলনকারীরা।
শনিবার নোনাডাঙায় গিয়ে আন্দোলকারী ৭৮টি পরিবারকে ফ্ল্যাট দেওয়ার ঘোষণা করলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। 
রাজ্যের পুরমন্ত্রী যখন আশ্বাসই দিচ্ছেন, তখন আন্দোলন যুক্ত থাকার যৌক্তিকতা খুঁজে পাচ্ছেন না ওই ৭৮টি পরিবারের সদস্যরা।
উচ্ছেদ প্রতিরোধ আন্দোলনে সামিল বাকি ৫৫টি পরিবার সম্পর্কে নীরব পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী। আর এতেই সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন ভাঙার চেষ্টার অভিযোগ করেছেন আন্দোলনকারীরা।
গত বছর উচ্ছেদের প্রতিবাদে বাইপাসের ধারে নোনাডাঙায় সংগঠিত হয় প্রতিরোধ আন্দোলন। আন্দোলনে সামিল হয় একাধিক মানবাধিকার এবং রাজনৈতিক সংগঠন। বারবার এই আন্দোলন ভাঙার চেষ্টা হয়েছে।  আন্দোলন মঞ্চ থেকেই গ্রেফতার হন মাতঙ্গিনী মহিলা সমিতির নেত্রী দেবলীনা চক্রবর্তী, বিজ্ঞানী এবং মানবাধিকার কর্মী পার্থসারথি রায়। গ্রেফতার হয় একাধিক আন্দোলনকারীও। দুদিন আগেও তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের মারধরের অভিযোগ ওঠে। শেষ পর্যন্ত পাইয়ে দেওয়ার রাজনীতি দিয়ে আন্দোলন ভাঙার অভিযোগ উঠল রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে।  



First Published: Saturday, December 22, 2012 - 20:14


comments powered by Disqus