পঞ্চায়েত নিয়ে আবার আদালতে কমিশনের আবেদন

পঞ্চায়েত নিয়ে আবার আদালতে কমিশনের আবেদন

পঞ্চায়েত নিয়ে আবার আদালতে কমিশনের আবেদনপঞ্চায়েত ভোটে মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানাল কমিশন। মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি চেয়ে  প্রতিদিনই শুনানির আবেদন জানিয়েছে কমিশন। জুন মাসেই পঞ্চায়েতের মেয়াদ শেষ হচ্ছে রাজ্যে। তার মধ্যে মামলার নিষ্পত্তি না হলে জটিল পরিস্থিতি তৈরি হবে বলে আদালতে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে কমিশন। দ্রুত মামলার নিষ্পত্তি চেয়ে রাজ্যের তরফেও আজ হাইকোর্টেও আবেদন জানানো হয়।

পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে সরকার। এর আগে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে শুনানির শেষ পর্যায়ে রাজ্যের তরফে আদালত ও কমিশনকে  চিঠি দেওয়া হয়। চিঠিতে পাঁচ ও আটই মে সরকার নির্বাচন করতে চায় বলে উল্লেখ করা হয়। এই অনুসারে একটি গেজেট নোটিফিকেশনও হয়। 

মঙ্গলবার ফের এই মামলার শুনানি।

তার আগে সোমবার দুটি বিষয় নিয়ে আদালতের কাছে আবেদন জানায় কমিশন। কমিশনের তরফে পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে মামলার দ্রুত নিষ্পত্তির আবেদন জানানো হয়। আদালতের নিয়ম অনুযায়ী মঙ্গল ও বৃহস্পতিবারের পরিবর্তে  মামলার দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য প্রতিদিনই মামলার শুনানির আবেদন জানিয়েছে কমিশন। একইসঙ্গে পাঁচ ও আটই মে পঞ্চায়েত ভোটের যে নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে সরকার, আদালতের কাছে তাও খারিজের আবেদন জানিয়েছে কমিশন।

কমিশনের তরফে আদালতে জানানো হয়েছে জুনেই পঞ্চায়েতের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তার আগে ভোট না করা গেলে জটিল পরিস্থিতি তৈরি হবে। রাজ্যের তরফেও সোমবার হাইকোর্টে দ্রুত মামলার নিষ্পত্তির আবেদন জানানো হয়। মঙ্গলবার হাইকোর্টে মামলার শুনানি হবে। দুপক্ষের আবেদন নিয়েই মঙ্গলবার  আদালতে আলোচনা হবে। দুপক্ষের আবেদনের ভিত্তিতে আদালত সিদ্ধান্তও নিতে পারে শুনানিতে। 

আজ শিলিগুড়িতে বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু অভিযোগ করেন, জয় নিশ্চিত নয় বুঝতে পেরেই লোকসভা নির্বাচনের পর পঞ্চায়েত ভোটের কৌশল নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস।

গতকালই পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে রাজ্য সরকারকে কাঠগড়ায় তুলেছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জয়রাম রমেশ। গতকাল শিলিগুড়িতে তিনি বলেন, সরকার ইচ্ছাকৃতভাবে ভোট পিছিয়ে দিতে চাইছে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নির্বাচিত পঞ্চায়েত গঠন না হলে গ্রামোন্নয়নের বিভিন্ন প্রকল্পে কেন্দ্রীয় সরকারের সাহায্য যে আটকে যাবে, সাফ সেকথা বলে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়নমন্ত্রী। 

অন্যদিকে, রাজ্যের ১৩টি পুরসভার ভোট কবে তা জানতে চেয়ে ফের রাজ্যসরকারকে চিঠি দিল কমিশন। এই নিয়ে কমিশন তৃতীয়বার রাজ্যসরকারকে চিঠি দিল । আগামী জুন মাসে ওই তেরোটি পুরসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য  ভোটের সময় জানতে চায়  কমিশন। কিন্তু কমিশনকে এবিষয়ে একটি চিঠিও পাঠায়নি সরকার। ফলে এবার পুরভোট করতে সরকারের সদিচ্ছা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এদিন সিপিআইএম নেতা রবীন দেব দেখা করেন কমিশনের সচিব তাপস রায়ের সঙ্গে।  ২৬টি দাবির  বিষয়ে কথা বলেন তিনি।

First Published: Monday, April 08, 2013, 21:47


comments powered by Disqus