কমিশনকে অগ্রাহ্য করে ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা রাজ্যের

সুষ্ঠু এবং অবাধে পঞ্চায়েত ভোট করার জন্য রাজ্য নির্বাচন কমিশন যে যে প্রস্তাব পাঠিয়েছিল তার কোনটাই মানল না সরকার। ২৬ এবং ৩০ এপ্রিল দুদফায় নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি জারি করে শুক্রবার কমিশনকে চিঠি দিয়েছে রাজ্য সরকার। বুথ পাহারার জন্য ভিনরাজ্য থেকে সশস্ত্র পুলিস আনা হলেও, কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রস্তাব পত্রপাঠ নাকচ করে দিলেন পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। 

Updated: Mar 23, 2013, 09:59 AM IST

সুষ্ঠু এবং অবাধে পঞ্চায়েত ভোট করার জন্য রাজ্য নির্বাচন কমিশন যে যে প্রস্তাব পাঠিয়েছিল তার কোনটাই মানল না সরকার। ২৬ এবং ৩০ এপ্রিল দুদফায় নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি জারি করে শুক্রবার কমিশনকে চিঠি দিয়েছে রাজ্য সরকার। বুথ পাহারার জন্য ভিনরাজ্য থেকে সশস্ত্র পুলিস আনা হলেও, কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রস্তাব পত্রপাঠ নাকচ করে দিলেন পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। 
রাজ্য নির্বাচন কমিশনের সমস্ত প্রস্তাব অগ্রাহ্য করে দু`দফায় পঞ্চায়েত  ভোটের বিজ্ঞপ্তি জারি করল  রাজ্য সরকার। ২৬ ও ৩০ এপ্রিল দু`দফায় ভোটের প্রস্তাব দিল সরকার। উত্তর দিনাজপুর, মালদা এবং মুর্শিদাবাদে ভোট হবে ৩০ এপ্রিল। জঙ্গলমহল সহ বাকি ১৪টি জেলায় ভোট হবে ২৬ এপ্রিল। বুথ পাহারায় থাকছে না কেন্দ্রীয় বাহিনীও।
 
শুক্রবার রাতেই এই চিঠি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে। এখন কী করবে কমিশন? সুস্থ এবং অবাধ নির্বাচনের জন্য তিন দফায় ভোট চেয়েছিল কমিশন। একই সঙ্গে ৮০০ কম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনীরও দাবি জানিয়েছিল তারা। সমস্ত দাবি নাকচ হওয়ার পর তাদের পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করতে সোমবার বৈঠকে বসছে কমিশন।