পার্কস্ট্রীটের ঘটনার পর থেকে পুলিসের হাতেই লাঞ্ছিত হচ্ছেন ধর্ষিতা

Last Updated: Friday, September 14, 2012 - 20:14

প্রশাসনের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনলেন পার্কস্ট্রীটের ধর্ষিতা। ঘটনার পর থানায় অভিযোগ জানাতে গিয়ে পুলিস সম্পর্কে তাঁর ধারনাটা বদলে গিয়েছিল তাঁর। অভিযোগ নেওয়া তো দূরের কথা উল্টে তাঁকে এবং তাঁর আত্মীয়কে পুলিসের কটূক্তিও শুনতে হয়েছিল। পরবর্তীকালে সংবাদমাধ্যমের চাপে পুলিস কিছুটা সক্রিয় হলেও, আবারও এক পুলিসকর্মীর মানসিক অত্যাচারের শিকার ওই মহিলা। 
ওই ঘটনার পর থেকেই যে আবাসনে থাকেন তিনি, সেখানে এক ব্যক্তি নিজেকে পুলিস পরিচয় দিয়ে তাঁর উপর মানসিক অত্যাচার চালাতেন বলে অভিযোগ জানিয়েছেন ওই মহিলা। পরিস্থিতি এতটাই ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে যে বৃহস্পতিবার রাতে বৃদ্ধা মা ও দুই মেয়েকে নিয়ে রাস্তায় নামতে বাধ্য হন তিনি। যে বাড়িতে তিনি থাকেন, তারই একতলায় অভিযুক্ত ব্যক্তি থাকেন বলে জানিয়েছেন অভিযোগকারিনী। নিজেকে আলিপুর থানার পুলিস অফিসার পরিচয় দিয়ে দিনের পর দিন কুরুচিকর ভাষায় গালিগালাজ করে, তাঁকে উত্যক্ত করতেন ওই ব্যক্তি। শুধু তিনি একা নয়। পার্ক স্ট্রিট কাণ্ডের পর থেকে নাকি তাঁর দুই মেয়েকেও একাধিকবার কুরুচিকর ইঙ্গিত দিয়েছেন ওই ব্যক্তি।
যে পুলিসকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁকে পাওয়া নি। ঘটনার পরই তিনি থানায় চলে যান বলে দাবি ওই মহিলার। তবে বাড়ির অন্যান্য আবাসিকরা অবশ্য জানিয়েছেন, ওই মহিলা রাত করে ফেরায় বাড়ির নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছিল।
 
কলকাতায় মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে ইদানিং বার বার প্রশ্ন উঠেছে। রাতের মহানগর যে কতটা নিরাপদ, সেটা বোধহয় তাঁর থেকে ভালো আর কেউ জানেন না। তবুও সব জেনে বুঝেও প্রতিবেশীদের লাঞ্ছনা থেকে বাঁচতে, ফের রাস্তাকেই বেছে নিলেন তিনি। অথচ সেই রাতেও যেমন অসহায় ওই মহিলার সাহায্যে এগিয়ে আসেনি পুলিস কিম্বা প্রশাসন, এবারও দুই মেয়েকে নিয়ে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ হওয়া সেই অসহায় মহিলার পাশে দাঁড়াল না কেউই।



First Published: Friday, September 14, 2012 - 20:17


comments powered by Disqus