সৌরভের বাঁ হাত এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি, ময়নাতদন্তে বলা হল নিহতের ওপর খুনের চেষ্টা

Last Updated: Monday, July 7, 2014 - 08:18

রেললাইনে কাটা পড়ার পর ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুচি কুচি করা হয়েছিল সৌরভ চৌধুরীর দেহ। ময়নাতদন্তের পর এমনটাই জানাচ্ছেন চিকিত্সকেরা। নিহত ছাত্রের দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে ভিসেরা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। হবে ফরেনসিক পরীক্ষাও।

নিহত ছাত্র সৌরভ চৌধুরীর পোস্ট মর্টেম করতে গিয়ে রীতিমতো চমকে উঠেছেন চিকিত্সকেরা। কতটা নৃশংখ ছিল এই খুন? এনআরএস হাসপাতালের ময়নাতদন্তকারী চিকিত্সকদের সূত্রে জানা যাচ্ছে, মোট তিনবার আঘাত করা হয়েছিল সৌরভ চৌধুরীকে।

প্রথমে ছাত্রের গলা এবং দেহের অন্য জায়গায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপ মারা হয়।

এরপর ছাত্রকে ফেলে আসা হয় ট্রেন লাইনে। ট্রেনে কাটা পড়েন সৌরভ চৌধুরী।

এখানেই শেষ নয়, ট্রেনে কাটা পড়ার পর কেটে কুচি কুচি করা হয় দেহ।

সৌরভের বাঁ হাত এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তকারীরা জানিয়েছেন, হোমিসাইডাল অ্যাটাক ওভার কিলড (HOMICIDAL ATTACK OVER KILLED)। অর্থাত্ নিহতের ওপর খুনের চেষ্টা।

তবে কখন সৌরভ চৌধুরীর মৃত্যু হল, তা নিয়ে এখনও ধন্দে ময়নাতদন্তকারীরা। প্রথমবার ধারালো অস্ত্রের কোপেই সৌরভের মৃত্যু হয়েছিল নাকি ট্রেনে কাটা পড়ার পর ছাত্রের মৃত্যু, তা নিয়ে এখনও নিশ্চিত নন ময়নাতদন্তকারীরা। ময়নাতদন্তকারীরা জানাচ্ছেন, প্রথমবার কোপের পর চলত্শক্তি হারিয়েছিলেন সৌরভ। অর্থাত্ ট্রেনে কাটা পড়েই যদি মৃত্যু হয়ে থাকে সৌরভের, তাহলে তার দেহে শুধুমাত্র প্রাণটুকুই ছিল। কার্যত অচৈতন্য হয়ে পড়েছিলেন তিনি। শিয়ালদহগামী ডাউন লোকাল ট্রেনের চালক শুক্রবার রাতে কন্ট্রোল রুমে যে মেমো দিয়েছিলেন, তাতে তিনি লিখেছিলেন ট্রেনের কাউক্যাচারের সঙ্গে কোনও কিছুর ধাক্কা লেগেছে। তদন্তকারী অফিসারেরা নিশ্চিত, সৌরভের মৃত্যু নিশ্চিত করতেই ট্রেন লাইনে ফেলা হয়েছিল। কিন্তু কীভাবে এবং কখন ছাত্রের মৃত্যু হল, তা জানতেই এবার ভিসেরা পরীক্ষার দিকে তাকিয়ে তদন্তকারীরা। ইতিমধ্যেই সৌরভের দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে ভিসেরা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।



First Published: Monday, July 7, 2014 - 08:18


comments powered by Disqus