রেল বাজেটে রাজ্য পেল ৭টি নতুন ট্রেন

রেল বাজেটে রাজ্যের প্রাপ্তি মাত্র ৫টি দূরপাল্লার ট্রেন। কলকাতা-সীতামারি, কলকাতা আগরা, কাটিহার- হাওড়া এবং হাওড়া নিউ জলপাইগুড়ি বাতানুকুল সাপ্তাহিক ট্রেনের ঘোষণা করেছেন রেলমন্ত্রী। ঘোষণা হয়েছে হাওড়া-চেন্নাই বাতানুকূল দ্বিসাপ্তাহিক এক্সপ্রেসের। এছাড়া শিয়ালদা-বহরমপুর কোর্ট মেমু এবং কাটোয়া-জঙ্গিপুর ডেমু ট্রেনের ঘোষণা করেছেন রেলমন্ত্রী।

Updated: Feb 26, 2013, 02:30 PM IST

রেল বাজেটে রাজ্যের প্রাপ্তি মাত্র ৫টি দূরপাল্লার ট্রেন। কলকাতা-সীতামারি, কলকাতা আগরা, কাটিহার- হাওড়া এবং হাওড়া নিউ জলপাইগুড়ি বাতানুকুল সাপ্তাহিক ট্রেনের ঘোষণা করেছেন রেলমন্ত্রী। ঘোষণা হয়েছে হাওড়া-চেন্নাই বাতানুকূল দ্বিসাপ্তাহিক এক্সপ্রেসের। এছাড়া শিয়ালদা-বহরমপুর কোর্ট মেমু এবং কাটোয়া-জঙ্গিপুর ডেমু ট্রেনের ঘোষণা করেছেন রেলমন্ত্রী।
সরাসরি বাড়ানো না হলেও ঘুরপথে বাড়ানো হল যাত্রীভাড়া। দূরপাল্লার প্রতিটি টিকিটের ক্ষেত্রে বসানো হচ্ছে বেশ কিছু সারচার্জ। আজ রেল বাজেট পেশ করে রেলমন্ত্রী পবন বনসল বলেন, "প্রতিটি টিকিটের ক্ষেত্রে সাপ্লিমেন্টারি চার্জ এবং রিজার্ভেশন চার্জ বাড়বে।" তাছাড়াও ততকালের ক্ষেত্রে এবং টিকিট বাতিল করলে আগের তুলনায় বেশি চার্জ লাগবে। তবে, বাজেট প্রস্তাব অনুযায়ী লোকাল ট্রেনের ভাড়া বাড়ছে না। পণ্য মাশুল ৫ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ানোর প্রস্তাব রয়েছে রেল বাজেটে। অর্থ সঙ্কট মেটাতেই রেলের পণ্য মাশুল বাড়াতে হয়েছে। আজ রেল বাজেট বক্তৃতার শুরুতেই একথা বলেন রেলমন্ত্রী পবনকুমার বনসল। তিনি বলেন, "টাকার অভাবে বহু জায়গায় থমকে গিয়েছে গেজ সম্প্রসারণের কাজ।"
রেল বাজেটে দেশজুড়ে ২৫টি কারখানার ঘোষণা করেছেন রেলমন্ত্রী পবনকুমার বনসল। তবে এই ২৫ টির মধ্যে মাত্র একটি প্রকল্প আসছে এ রাজ্যে। রেলমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী, বহরমপুরে একটি ওয়ার্কশপ বানাবে রেল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী থাকাকালীন বহু রেল কারখানা ঘোষিত হয় এ রাজ্যের জন্য। তবে, তার বেশিরভাগ প্রকল্পের কাজই শুরু করা যায়নি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সময় ঘোষিত ৩৭ টি প্রকল্পের শিলান্যাস হলেও একটিরও ফিজিবিলিটি রিপোর্ট এখনও তৈরি করা যায়নি। কোদকর কমিটির সুপারিশ মেনে দুর্ঘটনা শূন্য ব্যবস্থা তৈরিই এই মুহূর্তে অন্যতম লক্ষ্য। রেল বাজেট পেশ করতে গিয়ে এমনটাই বললেন পবন বনসল।