সারদাকাণ্ডে ফের নয়া মোড়, সুদীপ্ত-দেবযানীকে জেরা করতে চায় সিবিআই

সারদাকাণ্ডে ফের নয়া মোড়। সারদার কর্ণধার সুদীপ্ত সেন ও দেবযানী মুখোপাধ্যায়কে এবার জেরা করতে চায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এসএফআইও। এর আগে কুণাল ঘোষকে জেরা করে এসএফআইও। তৃণমূলের আরেক সাংসদ সৃঞ্জয় বসুকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কেন্দ্রীয় এই গোয়েন্দা সংস্থা।

Updated: Dec 3, 2013, 03:21 PM IST

সারদাকাণ্ডে ফের নয়া মোড়। সারদার কর্ণধার সুদীপ্ত সেন ও দেবযানী মুখোপাধ্যায়কে এবার জেরা করতে চায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এসএফআইও। এর আগে কুণাল ঘোষকে জেরা করে এসএফআইও। তৃণমূলের আরেক সাংসদ সৃঞ্জয় বসুকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কেন্দ্রীয় এই গোয়েন্দা সংস্থা।

প্রতারণার অভিযোগে এই মুহূর্তে পুলিসের হেফাজতে কুণআল ঘোষ। সম্ভবত সেই বিষয়ে আরও তথ্য পাওয়ার জন্যই সুদীপ্ত-দেবযানীকে জেরা করতে চায় সিরিয়াস ফ্রড ইনভেস্টিগেশন অফিস বা এসএএইআইও। ইতিমধ্যে বিধাননগর আদালতে এই মর্মে আবেদনও করেছে তারা।

এদিকে, অসুস্থ বোধ করায় রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন সারদাকাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত, সুদীপ্ত সেনের সহকারি দেবযানী মখোপাধ্যায়। চিকিত্‍সকরা জানিয়েছেন যে তাঁর শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা রয়েছে এবং রক্তচাপও খুব বেশি। তাই দেবযানী মুখোপাধ্যায়কে কিছুদিন পর্যবেক্ষণে রাখা হবে বলে জানিয়েছেন চিকিত্‍সকরা। তবে জেলার প্রশাসনিক কর্তারা অবশ্য এনিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন।

দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের অসুস্থতা নিয়ে কেউই কোনও মন্তব্য করেন নি। বিচারাধীন অবস্থায় গতকাল রাতে জেলের মধ্যে হঠাত্‍ই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে কড়া পুলিসি প্রহরায় দেবযানী মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে যাওয়া হয় রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে।

রোগীকে পরীক্ষা করার পরই ভর্তি করে নেন সংশ্লিষ্ট চিকিত্‍সকরা। দেবযানীর পরিবারের অভিযোগ, জিজ্ঞাসাবাদের নামে তাঁর উপর অযথা চাপ সৃষ্টি করছে পুলিস। তাঁকে কারো সঙ্গে কথাও বলতে দেওয়া হচ্ছে না।