বান্ধবীকে নিয়ে বচসার জেরেই আক্রান্ত সায়ন্তন

Last Updated: Tuesday, July 2, 2013 - 23:04

বান্ধবীকে নিয়ে ঝামেলার জেরেই মারধর করা হয় রাজারহাটের ন্যাশনাল ইংলিশ স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র সায়ন্তন বসুকে। অভিযোগ, সায়ন্তনের পরিবারেরই। সায়ন্তনকে মারধরের ঘটনায় মঙ্গলবার সকালেই বাগুইআটি থানায় আত্মসমর্পণ করে এক অভিযুক্ত ছাত্র । অভিযুক্ত ছাত্রকে ৯ জুলাই পর্যন্ত হোমে রাখার নির্দেশ দিয়েছে জুভেনাইল কোর্ট।
কিছুদিন আগেই ওই বান্ধবীকে নিয়ে রেস্তোঁরায় গিয়েছিল সায়ন্তন। সেখানেই অভিযুক্ত দুই সহপাঠীর সঙ্গে বচসা হয় তার। সোমবার সেই ঘটনার জেরেই সায়ন্তনের ওপর হামলা চালায় দুই সহপাঠী । সায়ন্তনের এই বান্ধবীর কথা জানত তার পরিবারও। ঘটনায় স্কুলের বিরুদ্ধেই গাফিলতির অভিযোগ তুলেছে সায়ন্তনের পরিবার। তার মায়ের অভিযোগ, ঘটনাটিকে আড়াল করার চেষ্টা করছেন স্কুলের প্রিন্সিপাল। সায়ন্তনের মারধরের ঘটনায় দুই ছাত্রের নামে সোমবারই থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তার বাবা। এরপর মঙ্গলবার সকালেই বাগুইআটি থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করে অভিযুক্ত এক ছাত্র। যদিও আত্মসমর্পণ করা অভিযুক্ত ছাত্রের বাবার অভিযোগ, পুরো ঘটনায় ইচ্ছাকৃতভাবে নাম জড়ানো হয়েছে তাঁর ছেলের।
 
আশঙ্কাজনক অবস্থায় ইন্সটিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সে এখনও চিকিত্‍সা চলছে সায়ন্তনের। চিকিত্‍সকদের মতে বর্তমানে সায়ন্তনের অবস্থা স্থিতিশীল। রাজারহাটের ন্যাশনাল ইংলিশ স্কুলে সহপাঠীদের হাতে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র সায়ন্তন বসুর আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় যৌথ পরিবার ভেঙে যাওয়াকেই দায়ী করছেন মনোবিদরা। তাঁদের মতে, অনেকসময়ই সন্তানদের মনোভাব বুঝতে  পারেন না অভিভাবকরা। আর তার থেকেই হতাশা গ্রাস করে সন্তানদের। 
 
  



First Published: Tuesday, July 2, 2013 - 23:04


comments powered by Disqus