নেপাল পালানোর ছক বানচাল, ট্রানজিট রিমান্ডে শিবু আজ বারাকপুরে

Last Updated: Saturday, June 15, 2013 - 09:36

সাংবাদিক নিগ্রহের ঘটনায় ধৃত মূল অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা শিবু যাদবকে ট্রানজিট রিমান্ডে আজ বারাকপুরে নিয়ে আসা হচ্ছে। গতকাল বিহারের মোতিহারি  আদালতে  শিবু যাদব সহ নয় অভিযুক্তকে পেশ করে সুগোলি থানা। জেরায় জানা যায় বিহার থেকে সড়কপথে নেপালে পালিয়ে যাওয়ার ছক কষেছিল শিবু যাদব। সেখান থেকেই ধৃতদের ট্রানজিট রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিস। ব্যারাকপুরে নিয়ে আসার পর আজই শিবু যাদবকে ব্যারাকপুর আদালতে পেশ করা হবে।
বিহার থেকে সড়কপথে নেপালে পালিয়ে যাওয়ার ছক কষেছিল শিবু যাদব। বারাকপুরে  সাংবাদিক নিগ্রহের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা শিবুকে জেরা করে এমনটাই জানতে পারল বিহার পুলিস। গতকাল বিহারের মোতিহারি  আদালতে  শিবু যাদব সহ নয় অভিযুক্তকে পেশ করে সুগোলি থানা। ধৃত ন-জনকে ট্রানজিট রিমান্ডে  বারাকপুর আনা হচ্ছে। কাপাশাপাশি বারাকপুরে তৃণমূল কর্মী জিতু তাঁতি খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা লাল্টুকে দীঘা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। রাতে তাকে বারাকপুর থানায় নিয়ে আসা হয়।
বৃহস্পতিবার দুপুরে বিহারের মোতিহারি জেলার পূর্ব চম্পারনে সুগোলি থানার পুলিসের হাতে ধরা পড়ে বারাকপুরকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা শিবু যাদব। ধৃতদের দফায় দফায় জেরার পর বিহার পুলিসের দাবি, পশ্চিমবঙ্গের নম্বর প্লেট লাগানো নীল রঙের এই টাটা সুমো নিয়ে নেপাল পালিয়ে যাওয়ার ছক কষেছিল বারাকপুরের কুখ্যাত দুষ্কৃতি শিবু যাদব। চালক সহ গাড়িতে শিবুর সঙ্গে ছিল আরও আটজন। ধৃতরা সকলেই বারাকপুরে সাংবাদিক নিগ্রহের ঘটনায় অভিযুক্ত।
 
মোবাইল টাওয়ার ট্র্যাক করে বুধবার বিহারের পূর্ব চম্পারন এলাকায়  শিবুর হদিস পায় বারাকপুর পুলিস। এরপরই সুগোলি থানার সঙ্গে যোগাযোগ করেন গোয়েন্দারা। সুগোলির রাস্তায় পশ্চিমবঙ্গের নম্বর প্লেট লাগানো শিবু যাদবের গাড়িটিকে আটক করে পুলিসের টহলদারি ভ্যান। শিবু যাদবের থেকে একটি মোবাইল ফোন, দুটি এটিএম কার্ড, একটি ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং নগদ কয়েক হাজার টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে বিহার পুলিস।  শিবু সহ ধৃত নজনকে শুক্রবার বিকেলে মোতিহারি আদালতে পেশ করা হয়। ধৃতদের ট্রানজিট রিমান্ডে বারাকপুর আনা হচ্ছে।
 



First Published: Saturday, June 15, 2013 - 09:36


comments powered by Disqus