মমতার বাড়ি গিয়েও ফোনেই কথা বললেন শোভনদেব

Last Updated: Saturday, December 1, 2012 - 16:56

তৃণমূলেই থাকছেন, নাকি দল ছাড়ছেন ক্ষুব্ধ-অপমানিত শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়? শনিবারও স্পষ্ট হল না ছবিটা। এদিন দুপুরে বাড়িতে গেলেও শোভনদেবের সঙ্গে দেখা করেননি মুখ্যমন্ত্রী। তবে সামনাসামনি দেখা না হলেও টেলিফোনে কথা হয় দু'জনের। তার আগে বিধানসভায় সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে একদফা আলোচনা সারেন শোভনদেব। তৃণমূল সূত্রে খবর, সেই আলোচনার ফল ইতিবাচক। 
দলীয় নেতৃত্বের অনুরোধের শুক্রবার বিক্ষোভ মিছিল প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন শোভনদেব। ওইদিনই তৃণমূল কংগ্রেস ভবনে দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর আলোচনায় বসার কথা থাকলেও, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ফোন পেয়ে মাঝপথ থেকেই ফিরে যান তিনি। শোভনদেবের সঙ্গে  আলোচনায় বসতে শনিবার ফের উদ্যোগী হয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব। চলে মানভঞ্জনের চেষ্টা।
শনিবার বিধানসভায় শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে বসেন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। এই দুজনেই আইএনটিটিইউসির হাই পাওয়ার কমিটির সদস্য। বিধানসভায় বৈঠকের রিপোর্ট যায় মুখ্যমন্ত্রীর কাছে। এরপর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে তাঁর বাড়ি যান শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। দেখা করার স্লিপ পাঠিয়ে প্রায় আধঘণ্টা অপেক্ষা করেন তিনি। তবে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দেন তিনি ব্যস্ত রয়েছেন। তবে টেলিফোনে দু'জনের কথা হয়। এরপরই মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। ফোনে কী কথা হয়েছে তা নিয়ে মুখ খোলেননি তিনি।তবে কি এখনও প্রশমিত হয়নি শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের ক্ষোভ? শনিবার দিনভরের ঘটনার পর এমনই জল্পনা রাজনৈতিক মহলে।   



First Published: Saturday, December 1, 2012 - 19:01


comments powered by Disqus