এসএসকেএমের হোস্টেলে মাদক ঢুকল কী করে? সুপারকে ডেকে পাঠল হাসপাতাল কতৃপক্ষ

এসএসকেএমে মাদককাণ্ডে এক ইন্টার্নের মৃত্যুর পর হস্টেল সুপারকে ডেকে পাঠাল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কীভাবে হস্টেলে মাদক পৌঁছল তার জবাবও চাওয়া হয়েছে সুপারের কাছে। এই ঘটনা নিয়ে রোগী কল্যান সমিতির জরুরি মিটিং ডাকা হয়েছে আগামিকাল। বৈঠকে থাকতে পারেন মন্ত্রী মদন মিত্র এবং ফিরহাদ হাকিম। হস্টেলে মাদক ঢোকা বন্ধ করতে ওয়ার্ডেন ও নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ সহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নিতে চলেছে এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ। তবে এরজন্য স্বাস্থ্য দফতরের অনুমোদন প্রয়োজন। তাই এবিষয়ে স্বাস্থ্য দফতরে আবেদন জানাচ্ছে এসএসকেএম। এই ব্যবস্থা যাতে রাজ্যের সব মেডিক্যাল করা যায় তা নিয়েও এসএসকেএমের তরফে প্রস্তাব পাঠানো হচ্ছে।

Updated: Feb 23, 2014, 06:31 PM IST

এসএসকেএমে মাদককাণ্ডে এক ইন্টার্নের মৃত্যুর পর হস্টেল সুপারকে ডেকে পাঠাল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কীভাবে হস্টেলে মাদক পৌঁছল তার জবাবও চাওয়া হয়েছে সুপারের কাছে। এই ঘটনা নিয়ে রোগী কল্যান সমিতির জরুরি মিটিং ডাকা হয়েছে আগামিকাল। বৈঠকে থাকতে পারেন মন্ত্রী মদন মিত্র এবং ফিরহাদ হাকিম। হস্টেলে মাদক ঢোকা বন্ধ করতে ওয়ার্ডেন ও নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ সহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নিতে চলেছে এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ। তবে এরজন্য স্বাস্থ্য দফতরের অনুমোদন প্রয়োজন। তাই এবিষয়ে স্বাস্থ্য দফতরে আবেদন জানাচ্ছে এসএসকেএম। এই ব্যবস্থা যাতে রাজ্যের সব মেডিক্যাল করা যায় তা নিয়েও এসএসকেএমের তরফে প্রস্তাব পাঠানো হচ্ছে।

হস্টেলের ভিতরে মাত্রাতিরিক্ত মাদক সেবনে এসএসকেএমে ইন্টার্ন ডাক্তারের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় প্রশ্নের মুখে হাসপাতালের নিরাপত্তা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ঘটনার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তলব করেছে রাজ্য সরকার। ওই দুই ইন্টার্নের ঘর থেকে পুলিস প্রচুর ব্যবহৃত সিরিঞ্জ এবং হেরোইন বাজেয়াপ্ত করেছে । পাওয়া গিয়েছে পোড়া রাংতা এবং চামচ। এগুলি মাদক সেবনে ব্যবহার করা হত কিনা তার ফরেন্সিক পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। মাদক সেবনে অসুস্থ শাহবাজ সিদ্দিকির অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। আজ সকালে তাকে ভেন্টিলেশনের বাইরে আনা হয়েছে।