অমিতের বাজেটে মুদ্রাস্ফীতি আকাশ ছোঁবে, আশঙ্কায় শিল্পমহল

রাজ্য বাজেটের ভ্যাট এক শতাংশ বাড়ানো হয়েছে যার জেরে জিনিস পত্রের দাম একলাফে অনেকটাই বাড়বে। শুধু বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিই নয়, বণিকমহলের বক্তব্য, এই সিদ্ধান্তে মুদ্রাস্ফীতি আকাশ ছোঁবে। 

Updated: Mar 11, 2013, 08:40 PM IST

রাজ্য বাজেটের ভ্যাট এক শতাংশ বাড়ানো হয়েছে যার জেরে জিনিস পত্রের দাম একলাফে অনেকটাই বাড়বে। শুধু বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিই নয়, বণিকমহলের বক্তব্য, এই সিদ্ধান্তে মুদ্রাস্ফীতি আকাশ ছোঁবে। 
রাজ্যে যখন ভ্যাট চালু হয়, তার চরম বিরোধিতা করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। এবার রাজ্যের আয় বাড়াতে ভ্যাটকেই হাতিয়ার করল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। ভ্যাটের নিম্নসীমা চার শতাংশ থেকে বাড়িয়ে পাঁচ শতাংশ করা হয়েছে।
 
উর্দ্ধসীমা ১৪.৫ শতাংশ থেকে ১৫.৫ শতাংশ করা হয়েছে। যেহেতু সব জিনিসের ক্ষেত্রেই ভ্যাট প্রযোজ্য তাই এই এক শতাংশ বৃদ্ধির জেরে জিনিসপত্রের দাম লাফিয়ে বাড়বে। বাম ও কংগ্রেস রাজ্যের দুই বিরোধী শিবিরই ভ্যাট বৃদ্ধি নিয়ে অসন্তোষ জানিয়েছে।
 
শুধু বিরোধী রাজনৈতিক শিবিরই নয়, বনিক মহলও একই আশঙ্কা করছে। তাদের বক্তব্য বর্ধিত ভ্যাটের ফলে সব ধরণের জিনিসপত্রের মূল্যবৃদ্ধি অবশ্যম্ভাবি।এর জেরে শুধুমাত্র দাম বাড়ছে না সোনা ও রূপোর। রাজ্যের ব্যবসা বাণিজ্যে ভ্যাট বৃদ্ধি বড়সড় প্রভাব ফেলবে।
 
তবে, দাম বাড়া ইস্যু নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ সরকারপক্ষ। নজিরবিহীনভাবে বাজেট পেশের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হননি রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। তার জায়গায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন রাজ্যের পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।
 
পরিষদীয় মন্ত্রীর কাছে সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল, মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সরকারের কী বক্তব্য? প্রশ্নের কোনও উত্তর দিতে পারেনননি পার্থ চট্টোপাধ্যায়।