সংঘাতে অনড় থেকেও, জেলা বিন্যাসে বদল আনল রাজ্য

Last Updated: Tuesday, March 26, 2013 - 12:30

প্রত্যাশিত ভাবেই বরফ গলল না। পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে কমিশনের সঙ্গে সংঘাতের পথেই অনড় রইল রাজ্য সরকার। কমিশনের সুপারিশ উড়িয়ে দিয়ে পঞ্চায়েতমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন, রাজ্য সরকার ঘোষিত ২৬ ও ৩০ এপ্রিল, এই দুদিনই ভোট হবে।
কেন্দ্রীয় বাহিনী নয়, প্রয়োজনে অন্য রাজ্য থেকে বাহিনী এনে ভোট করার ব্যাপারেও সরকার অনড়। তবে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দ্বিতীয় দফার বৈঠকের পর অবস্থান কিছুটা নমনীয় করেছেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী। জেলাবিন্যাস কিছুটা বদলে প্রথম দফায় দক্ষিণবঙ্গ আর দ্বিতীয় দফায় উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভোট হবে বলে পঞ্চায়েতমন্ত্রী জানিয়েছেন। 
রাজ্য নির্বাচন কমিশন চিঠি দেওয়ার পরেও, পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে নিজের অবস্থানে অনড় রইল রাজ্য সরকার। বুধবার পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে মহাকরণে পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন, পূর্ব ঘোষণা নির্ধারিত দিনেই হবে পঞ্চায়েত নির্বাচন। কমিশনকে আক্রমণ করে পঞ্চায়েত মন্ত্রী বলেন, কমিশন শিশুসুলভ আচরণ করছে। এরপর রাজ্যের মুখ্যসচিব সঞ্জয় মিত্রকে রাজভবনে ডেকে পাঠান রাজ্যপাল এমকে নারায়ণন। সন্ধ্যায় রাজভবনে যাবেন সঞ্জয় মিত্র। এদিকে রাজ্য সরকারকে তোপ দাগল রাজ্য কংগ্রেস।
প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার একতরফা ভোটের দিন ঘোষণা করে রাজ্য। সোমবার  রাজ্যের সেই প্রস্তাব পুনর্বিবেচনার জন্য ফেরত পাঠিয়ে দিল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। এই সঙ্কট মেটাতে আদালতে যাওয়ার আগে রাজ্যপালের হস্তক্ষেপ চেয়ে দ্বারস্থ হয় কমিশন। পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে রাজ্যপালের সঙ্গে বৈঠক করতে আজ দুপুর বারোটা নাগাদ রাজভবনে যান রাজ্য নির্বাচন কমিশনার। রাজ্যপালের সঙ্গে প্রায় দেড়ঘণ্টা কথা বলেন তিনি।
 
রাজ্য নির্বাচন কমিশনার মীরা পাণ্ডে ৷ পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে মহাকরণে আজ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব। প্রায় কুড়ি মিনিট বৈঠক করেন তাঁরা। বৈঠকে নির্বাচন কমিশনের চিঠির কী জবাব দেওয়া হবে তা নিয়েই মূলত আলোচনা হয়েছিল।
ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন
কমিশন অবাস্তব চিঠি দিয়েছে: সুব্রত
নির্ধারিত দিনেই হবে নির্বাচন: সুব্রত
এখনই কোনও মন্তব্য করতে চাই না: মীরা পাণ্ডা



First Published: Tuesday, March 26, 2013 - 21:32


comments powered by Disqus