রাজ্যের কর্মসংস্কৃতি নিয়ে তোপ দাগলেন সুব্রত মুখার্জি

Last Updated: Friday, August 3, 2012 - 23:11

সরকারি কর্মীদের বেশিরভাগ অংশই ঠিকমতো কাজ করেন না। এই বলেই সরকারি কর্মীদের কর্মসংস্কৃতি নিয়ে তোপ দাগলেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, কর্মীদের অনেকেই সময় মতো অফিসে আসেন না। অফিসে এলেও কাজের সময় ক্যারাম খেলেন। তাঁর দফতরে কর্মসংস্কৃতি ফেরাতে পঞ্চায়েত দফতরকে এক ছাতার তলায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সুব্রতবাবু। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৃহস্পতিবারই জানিয়ে দিয়েছেন, এ বছর আর রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ডি এ হচ্ছে না। পরবর্তী ডি এ দেওয়া হবে জানুয়ারি মাসে।
এই নিয়ে শুক্রবার সারাদিন ধরে মহাকরণে বিক্ষোভ দেখান বিভিন্ন কর্মচারী সংগঠনের সদস্যরা। সরকারি কর্মীদের একটা মহলে যখন ডি এ নিয়ে ক্ষোভ তুঙ্গে, সে সময়েই তাঁদের কর্মসংস্কৃতি নিয়ে পাল্টা তোপ দাগলেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। শুক্রবার মহাকরণে বসেই তাঁর অভিযোগ, সরকারি কর্মীদের বড় অংশই ঠিকমতো কাজ করেন না।
সরকারি কর্মচারীদের হাজিরা নিয়ে এর আগেই সার্কুলার জারি করা হয়েছিল। কিন্তু সুব্রতবাবুর বক্তব্য, এতদিনেও কর্মীদের কাজের অভ্যেস ফেরানো যায়নি। সময়মতো কর্মীরা হাজিরা তো দেনই না, উল্টে তাঁরা কাজের সময় ক্যারাম খেলে, কাগজ পড়ে সময় কাটান বলে বিঁধেছেন পঞ্চায়েতমন্ত্রী। সরকারি কর্মীদের কর্মসংস্কৃতি ফেরাতেই পঞ্চায়েত নির্বাচনের পরে সল্টলেকে নতুন ভবনে নিয়ে যাওয়া হবে পঞ্চায়েত দফতর। সেখানে পাঞ্চিং মেশিন বসানো হবে। ফলে কে কখন অফিসে আসবেন, তার রেকর্ড থাকবে। সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, তাঁর দফতরে কর্মসংস্কৃতি ফেরাতে কড়া পদক্ষেপ নেবেন তিনি।
   



First Published: Friday, August 3, 2012 - 23:15


comments powered by Disqus