টাটাগোষ্ঠী নয় কাজের পিছনে ছুটেছিল সরকার: বুদ্ধদেব

টাটাগোষ্ঠী নয় কাজের পিছনে ছুটেছিল তাঁর সরকার। বেঙ্গল লিডসের প্রাক্কালে ফের একবার সিঙ্গুর থেকে একলাখি গাড়ি কারখানার বিদায় প্রসঙ্গকে টেনে আনলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। রাজারহাটের জনসভায় তিনি বলেন, গাড়ি প্রকল্প হলে দশ হাজার লোকের কাজ হত। আফসোসের সুরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্য, সিঙ্গুর, রাজারহাট, হলদিয়া সবর্ত্র এখন শুধুই অন্ধকার।

Updated: Jan 14, 2013, 09:04 PM IST

টাটাগোষ্ঠী নয় কাজের পিছনে ছুটেছিল তাঁর সরকার। বেঙ্গল লিডসের প্রাক্কালে ফের একবার সিঙ্গুর থেকে একলাখি গাড়ি কারখানার বিদায় প্রসঙ্গকে টেনে আনলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। রাজারহাটের জনসভায় তিনি বলেন, গাড়ি প্রকল্প হলে দশ হাজার লোকের কাজ হত। আফসোসের সুরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্য, সিঙ্গুর, রাজারহাট, হলদিয়া সবর্ত্র এখন শুধুই অন্ধকার।
সিঙ্গুরে একলাখি গাড়ি, নয়াচরে পেট্রো রসায়ন তালুক, রাজারহাটে স্যাটেলাইট টাউনশিপ, হলদিয়ায় জাহাজ কারখানা, বারাসত-রায়চক রাস্তা। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের আমলে একের পর এক বড় প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছিল এরাজ্যে। আর প্রতিটি প্রকল্পই মুখ থুবড়ে পড়ে তত্কালীন বিরোধী দলের চরম বিরোধিতায়। সেই আক্ষেপের সুর সোমবার বার বার শোনা গেল রাজারহাটে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের জনসভায়।
 
গৌতম দেব আবাসন মন্ত্রী থাকাকালীন রাজারহাট স্যাটেলাইট টাউনশিপ তৈরি হয়। বেঙ্গল লিডস শুরু ঠিক আগে প্রাক্তন আবাসন মন্ত্রীর বক্তব্য, রাজ্যের ভাবমূর্তি বদল ও সঠিক জমিনীতি না নিলে শিল্পায়ন সম্ভব নয়। রাজারহাটের জনসভায় ভাঙড় ইস্যুতেও সরব হন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তাঁর অভিযোগ পঞ্চায়েত নির্বাচনে আরাবুল ইসলামের পেশিশক্তিকে রাজ্যজুড়ে মডেল করতে চাইছে শাসক দল। দলীয় কর্মীদের মনোবল বাড়াতে পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় সভা করবেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।