এবার কোপ শিক্ষক শিক্ষিকাদের বেতনে

২৮ শে ফেব্রুয়ারি ধর্মঘটের দিন অনুপস্থিতির জন্য এবার কোপ পড়তে চলেছে শিক্ষক শিক্ষিকাদের বেতনেও। প্রায় ৪২ হাজার শিক্ষক শিক্ষিকার বেতন কাটতে চলেছে স্কুল শিক্ষা দফতর। এপ্রিল মাসের বেতন থেকেই টাকা কাটার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Updated: Apr 11, 2012, 09:57 PM IST

২৮ শে ফেব্রুয়ারি ধর্মঘটের দিন অনুপস্থিতির  জন্য এবার কোপ পড়তে চলেছে শিক্ষক শিক্ষিকাদের বেতনেও। প্রায় ৪২ হাজার শিক্ষক শিক্ষিকার বেতন কাটতে চলেছে স্কুল শিক্ষা দফতর। এপ্রিল মাসের বেতন থেকেই টাকা কাটার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ধর্মঘটের দিন গরহাজিরার জন্য সরকারি কর্মীদের বেতন কাটার সিদ্ধান্ত আগেই ঘোষনা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু সে সময় শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেছিলেন, ধর্মঘটে যোগ দেওয়া বা না দেওয়ার অধিকার সকলেরই আছে। ব্রাত্য বসুর এই মন্তব্যের জেরে বিতর্কের জল বেশ কিছুটা গড়ায়। ওই মন্তব্যের পরই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন স্কুলশিক্ষা মন্ত্রী। আর তার জেরেই এবার সরকারি কর্মীদের মতই ধর্মঘটের দিন অনুপস্থিত সমস্ত স্কুল শিক্ষকের বেতন কাটার সিদ্ধান্ত নিল স্কুলশিক্ষা দফতর । 
সরকারি স্কুলের পাশাপাশি যে সমস্ত স্কুল সরকার থেকে শিক্ষক শিক্ষকাদের বেতন বাবদ অর্থ সাহায্য পায় তাদের সবার ক্ষেত্রেই এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা দফতর। শিক্ষা দফতরের কাছে ইতিমধ্যেই যে তথ্য এসে পৌঁছেছে তাতে দেখা যাচ্ছে প্রায় ১৪ শতাংশ শিক্ষক শিক্ষিকা ধর্মঘটের দিন আসেননি। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিভাগ মিলিয়ে এই মুহুর্তে রাজ্যে প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ শিক্ষক শিক্ষিকা। শিক্ষা দফতরের তথ্য অনুযায়ী এদের মধ্যে প্রায় ৪২ হাজার শিক্ষক শিক্ষিকা ধর্মঘটের দিন আসেননি । এদের সকলেরই বেতন কাটা হবে বলে জানিয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতর। এপ্রিল মাসের বেতন থেকে এই টাকা কাটা হবে। এদিকে অনুদান প্রাপ্ত স্কুলের ক্ষেত্রে কিভাবে সরকার শিক্ষক শিক্ষিকাদের বেতন কাটছে সে বিষয়ে ইতিমধ্যেই ক্ষোভ দানা বাঁধছে শিক্ষক মহলে।