আড়াই ঘণ্টার সমাবেশে বত্রিশ মিনিট একা মমতার, বাকিটা বুদ্ধিজীবী ও টলিউড

তৃণমূল কংগ্রেসের ভরা ব্রিগেডে বক্তব্য রাখলেন শুধুই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর বললেন টলিউডের তারকারা। বাকি নেতামন্ত্রীরা সকলেই শ্রোতা। আড়াই ঘণ্টার বিজয় সমাবেশের বত্রিশ মিনিট বক্তৃতা। বাকি সময়টা মুখ্যমন্ত্রীর পছন্দের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

Updated: Jan 30, 2014, 10:10 PM IST

তৃণমূল কংগ্রেসের ভরা ব্রিগেডে বক্তব্য রাখলেন শুধুই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর বললেন টলিউডের তারকারা। বাকি নেতামন্ত্রীরা সকলেই শ্রোতা। আড়াই ঘণ্টার বিজয় সমাবেশের বত্রিশ মিনিট বক্তৃতা। বাকি সময়টা মুখ্যমন্ত্রীর পছন্দের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

তৃণমূলের ব্রিগেড মানেই, রাজনীতি আর বিনোদনের জমাটি প্যাকেজ। তাই মূল মঞ্চের পাশে দুটি সাংস্কৃতিক মঞ্চ। প্রায় হাতের নাগালে রুপোলি পর্দার নক্ষত্ররা। ব্রিগেডে আসার বোনাস পেলেন লক্ষ লক্ষ তৃণমূল কর্মী। গত ব্রিগেডে দেবের নাচ থাকলেও এবার শুধুই বক্তৃতা। তৃণমূলের সরকারকে ফ্যাসিস্ট বলায় মহাশ্বেতা দেবীর ওপরে দারুন চটে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন অবশ্য তাঁকে সঙ্গে নিয়েই মঞ্চে উঠলেন তিনি। লিখিত ভাষণে মুখ্যমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ডাকটা প্রথম শোনা গেল তাঁরই গলায়। তারপর সুর মেলালেন সকলে। আর সব শুনে খুশি মুখ্যমন্ত্রী নিজেও।

তবে বক্তার তালিকায় শুধুই কেন বুদ্ধিজীবী আর টলিউড? মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার আগে থেকেই সমাজের এই অংশের ক্যারিশমকে ভোট বাক্সে কাজে লাগাতে চান তৃণমূল নেত্রী। ব্রিগেডও ব্যতিক্রম হল না।