অনাস্থা আনছেন মমতা, সমর্থন চাইছেন বামেদের

Last Updated: Saturday, November 17, 2012 - 16:26

"দেশে লুঠ চলছে, ঝুট চলছে।"এই কথা বলে তৃণমূল সুপ্রিমো জানিয়ে দিলেন কেন্দ্রে সরকারের বিরুদ্ধে তাঁর দল অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলেছে। পেনশন, এফডিআই আইনের প্রতিবাদে সংসদে এই অনাস্থা আনা হবে বলে শনিবার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একথা জানিয়েছেন। সংসদে আসন্ন শীতকালীন অধিবেশনে বাম দলগুলির কাছেও অনাস্থা প্রস্তাব আনার আবেদন জানিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো।
গত ১৮ সেপ্টেম্বর তৃণমূল কংগ্রেস ইউপিএ ছেড়ে বেরিয়ে আসার পর কংগ্রেস-তৃণমূলের মধুর সম্পর্কে ছেদ পড়ে। খুচরো ব্যবসায় বিদেশি বিনিয়োগ, ডিজেলের দামবৃদ্ধি ও রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি কমানোর প্রতিবাদে জোট ভাঙেন মমতা। একদিকে শীতকালীন অধিবেশনে উঠতে চলা ঝরের আঁচ পেয়ে মনমোহন সরকার যখন `ফ্লোর ম্যনেজমেন্ট` করতে ব্যস্ত। সেইসময় তৃণমুলের তরফে অনাস্থা আনার কথা ক্ষমতাসীন সরকারের অস্বস্তি আরও বাড়াবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।
খুচরো ব্যবসায় বিদেশি বিনিয়োগ, রান্নার গ্যাস, জ্বালানি তেল-সহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্যবৃদ্ধি, বিমা-পেনসনে বিদেশি বিনিয়োগের মতো কেন্দ্রের একগুচ্ছ জনবিরোধী নীতির প্রতিবাদে সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের প্রথম দিনই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। শনিবার যে ভাবে বাম-বিজেপি-সহ বিরোধী দলগুলির কাছে সমর্থন চেয়েছেন মমতা, তা নিয়ে কটাক্ষ করেছেন দীপা দাশমুন্সি। তাঁর অভিযোগ, তৃণমূল জমানাতেও একই রকম ভাবে লুঠপাটের শিকার হচ্ছে রাজ্য। এ ভাবে কেন্দ্রে প্রাসঙ্গিকতা পাওয়া সম্ভব নয়। কিন্তু অনাস্থা প্রস্তাব সমর্থনের জন্য প্রয়োজনীয় সাংসদ তৃণমূলের সঙ্গে আছে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন দীপা দাশমুন্সি এবং বিমান বসু। যদিও এ ব্যাপারে আশাবাদী তৃণমূল নেত্রী। তৃণমূলের সাহসী সিদ্ধান্তের বাউন্সার শেষ পর্যন্ত
কী ভাবে সামাল দেন মনমোহন সিং, তা জানতে সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের দিকে তাকিয়ে থাকবে গোটা দেশ।



First Published: Saturday, November 17, 2012 - 21:10


comments powered by Disqus