ট্রিপল কেলেঙ্কারিতে জর্জরিত পুরসভা তিন বেসরকারি অডিট ফার্মকে সরিয়ে দিল

Last Updated: Sunday, December 8, 2013 - 22:31

সরিয়ে কেলেঙ্কারিতে তিন বেসরকারি অডিট ফার্মকে সরিয়ে দেওয়ার আগেই ফের টেন্ডারের নোটিস জারি করল কলকাতা পুরসভা।

ত্রিফলা থেকে তেল কেলেঙ্কারি। এই তিন অডিট ফার্মের রিপোর্টই বারবার অস্বস্তিতে ফেলেছে কলকাতা পুরসভাকে। যদিও নতুন টেন্ডারের নির্ধারিত সময়সীমা পার হয়ে গেলেও আপাতত হিমঘরেই রয়েছে নতুন অডিট ফার্মের নাম। পুরসভার একাধিক বেনয়িমের হিসেব নিকেশ অডিটে তুলে আনার জন্যই কি কোপ পড়ল ওই তিন অডিট সংস্থার ওপর? এখন এই প্রশ্নটাই ঘুরছে পুরসভার অন্দরে। ফের বিতর্কে কলকাতা পুরসভা। এবার অডিট ফার্ম বিতর্ক।

২০০৬ সাল থেকে কলকাতা পুরসভার সব অডিট করত তিনটি বেসরকারি ফার্ম মুখার্জি বিশ্বাস পাঠক, এসবি এসোসিয়েটস, কে কে এস অ্যান্ড কোম্পানি।

পুরসভার প্রচলিত নিয়ামানুযায়ী তিনবছর অন্তর টেন্ডার ডেকে এই বেসরকারি অডিট ফার্মগুলির পরিবর্তন করার কথা। দীর্ঘদিন ধরে কলকাতা পুরসভার অডিট দক্ষতার সঙ্গে করে আসছে এই তিনটি ফার্ম। হঠাৎ করেই আগাম নোটিস ছাড়া চলতি বছরের উনিশে অগাস্ট নতুন অডিট ফার্মের টেন্ডারের জন্য একটি নোটিস দেয় পুরসভা। কিন্তু অভিযোগ, মুখার্জি বিশ্বাস পাঠক, এসবি এসোসিয়েটস, কে কে এস অ্যান্ড কোম্পানিকে না জানিয়েই টেন্ডার বাতিল করে দেওয়া হয়। পুরসভার নিয়ম নোটিস দেওয়ার আগে টেন্ডার দিতে হয়। কিন্তু অভিযোগ, সে সবের তোয়াক্কা না করেই চলতি বছরের নয়ই সেপ্টেম্বর টেন্ডারের বিষয়টি পাসও হয়ে যায়।

১২ সেপ্টেম্বর নতুন কোম্পানিকে দায়িত্ব দেওয়ার কথা ছিল। নভেম্বর মাস পর্যন্ত এই টেন্ডারের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল। কিন্তু ডিসেম্বরের মাঝামাঝি হয়ে গেলেও টেন্ডারের গোটা বিষয়টি ধামাচাপা পড়ে গেছে। পুরসভার যুক্তি নির্ধারিত মেয়াদ শেষ হওয়ার কারণেই তিন কোম্পানিকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছ। কিন্তু অনেকেই মানছেন না এই যুক্তি। কারণ সে নিয়ম মানতে হলে দুহাজার নয় সালেই এই তিন অডিট ফার্মকে সরিয়ে দিতে হত।

পুরসভা সূত্রে খবর, এই তিন সংস্থাকে দিয়ে অডিট করাতে গিয়ে বেশ বেকায়দায় পড়েছে তৃণমূল পুরবোর্ড। কারণ এই সংস্থাগুলি পুরসভার খুটিনাটি অনেক কিছু জেনে গিয়েছিল।

একনজরে তিনটি কোন ফার্ম কী অডিট করেছে।

মুখার্জি বিশ্বাস পাঠক ফার্ম---তেল কেলেঙ্কারি

সাম্প্রতিককালে পুরসভার সবচেয়ে বড় কেলেঙ্কারি। যাতে নাম জড়িয়েছে মেয়র থেকে ডেপুটি মেয়র সহ প্রথম সারির অফিসারদের।

মুখার্জি বিশ্বাস পাঠক ফার্ম--পুরসভার ট্রিপ টোকেন কেলেঙ্কারি।

এসবি অ্যাসোসিয়েটস- ত্রিফলা কেলেঙ্কারি। যা শুধু পুরসভারই নয়। রাজ্যেরও মাথা ব্যথার কারণ।

কেকেএস অ্যান্ড কোম্পানি- মেডিক্ল্যাম পলিসি, কষাইখানার অডিট। কোনও কোনও কর্মীদের অতিরিক্ত পেমেন্টের অডিট করেছিল এই ফার্ম।

পুর কর্মীদের একাংশের মতে, এই তিন ফার্ম অডিটে পুরসভার অস্বস্তি বাড়িয়েছে। পুরসভার একের পর এক কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়েছে অনেক রাঘববোয়ালের।

শুধু অডিটই নয়, পুরসভার আর্থিক নয়ছয়ের ছবিটাও এরাই সামনে আনে। যেখানে রেয়াত করা হয়নি মেয়র বা সংশ্লিষ্ট দফতরের মেয়র পারিষদ থেকে অফিসার কাউকেই । প্রশ্ন উঠছে তবে কি অস্বস্তি ঢাকতেই সরিয়ে দেওয়া হল এদের?



First Published: Sunday, December 8, 2013 - 22:31
comments powered by Disqus