উড়ালপুলে বিভ্রাট, যানজটে ভুর্ভোগ নিত্যযাত্রীদের

ভয়ঙ্কর বিপর্যয়ের হাত থেকে বেঁচে গেল কলকাতা। গতকাল ভোররাতে, উল্টোডাঙা-বাইপাস সংযোগকারী উড়ালপুলের একাংশ ভেঙে পড়ে। উপর থেকে ছিটকে পড়ে মার্বেলবোঝাই একটি ট্রেলার। ট্রেলারের চালক ও দুই খালাসি গুরুতর জখম হয়েছেন।

Updated: Mar 4, 2013, 06:24 PM IST

ভয়ঙ্কর বিপর্যয়ের হাত থেকে বেঁচে গেল কলকাতা। গতকাল ভোররাতে, উল্টোডাঙা-বাইপাস সংযোগকারী উড়ালপুলের একাংশ ভেঙে পড়ে। উপর থেকে ছিটকে পড়ে মার্বেলবোঝাই একটি ট্রেলার। ট্রেলারের চালক ও দুই খালাসি গুরুতর জখম হয়েছেন।
সময় তখন ভোর ৪টে ২০। ভেঙে পড়ল উল্টোডাঙা-বাইপাস সংযোগকারী ফ্লাইওভার। ছিটকে পড়ল রাজস্থান থেকে আসা মার্বেল বোঝাই একটি ট্রেলার। ট্রেলারের চালক ও দুই খালাসিকে উদ্ধার করে আরজি কর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দুর্ঘটনার পরে উদ্ধারকাজ যা করার করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারাই। দমকল আর বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর ঘটনাস্থলে পৌঁছলেও তাঁদের তেমন কিছু করার ছিল না। ঘটনাস্থলে যান একাধিক মন্ত্রী। ব্রিজের নীচের জলা পরীক্ষার পরে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর নিশ্চিত, আর কেউ আটকে নেই। কিন্তু নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না স্থানীয় বাসিন্দারা। 
উড়ালপুলের ভেঙে পড়া অংশ সারাতে সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন পুরমন্ত্রী। ফলে সোমবার থেকে যানজট বেড়ে যায় উল্টোডাঙা এলাকায়। মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের কথা মাথায় রেখে বিকল্প ব্যবস্থার কথা ভাবছে প্রশাসন। রবিবার বিকেলে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন কেএমডিএ এবং যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞরা। 
 
ইতিমধ্যেই নির্মাণকারী সংস্থা এবং ট্রেলারের চালকের বিরুদ্ধে পুলিসে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তবে সব কিছু ছাপিয়ে উঠছে একটাই কথা, ভাগ্যিস দুর্ঘটনাটা ঘটল রবিবার ভোররাতে। কাজের দিনের ব্যস্ত সময়ে ঘটনাটা ঘটলে কী হত, তা ভাবলেই শিউড়ে উঠছেন সবাই।