মৌসুমী বায়ু লেট, চলবে দহন

Last Updated: Saturday, June 2, 2012 - 19:49

মৌসম ভবনের পূর্বাভাসকে ভুল প্রমাণ করে নির্ধারিত দিনে কেরালায় পৌঁছল না মৌসুমী বায়ু। সাধারণত পয়লা জুন কেরল উপকূলে শুরু হয় বর্ষার বৃষ্টি। কিন্তু শনিবার তার দেখা মেলেনি। অন্যদিকে উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে চলছে তাপপ্রবাহ। তার প্রভাব পড়ছে দক্ষিণবঙ্গেও। আগামী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলির তাপমাত্রা আরও বেশ কিছুটা বাড়াবে বলে আশঙ্কা করছে আবহাওয়া দফতর। তবে বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে উত্তরবঙ্গের তরাই ও ডুয়ার্সে।  
নির্ধারিত সময়ের ৩ দিন পর আন্দামানে প্রবেশ করেছিল মৌসুমী বায়ু। এরপর বঙ্গোপসাগরের ওপর কিছুদূর এগিয়েই থমকে গিয়েছিল তার গতিপথ। আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, শনিবার থেকে ফের গতি পেয়েছে মৌসুমী বায়ু। তবে তাতেও নির্ধারিত দিনে মূল ভূখণ্ড অর্থাত্‍ কেরলে পৌঁছতে পারেনি বর্ষা। কবে দেশে বর্ষা ঢুকবে তারও কোনও সদুত্তর মেলেনি আবহাওয়া দফতর সূত্রে। মৌসুমী বায়ুর আরেকটি শাখাও এখনও মায়ানমারে প্রবেশ করেনি। তাই উত্তরবঙ্গেও বর্ষা দেরিতে আসবে বলে আশঙ্কা করছেন আবহবিদেরা।
 
উত্তর-পশ্চিম রাজ্যগুলির তাপপ্রবাহের প্রভাব পড়ছে দক্ষিণবঙ্গের ওপরও। আগামী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গে তাপমাত্রা বাড়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।
 
দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে তাপমাত্রার পারদ চড়লেও উত্তরবঙ্গের তরাই ও ডুয়ার্সে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। বেশি বৃষ্টি হতে পারে কোচবিহার ও জলপাইগুড়ি জেলায়। নদিয়ার চাকদহে প্রচণ্ড গরমে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। মৃতের পরিচয় জানা যায়নি।
  



First Published: Sunday, June 3, 2012 - 01:02
comments powered by Disqus