৩ রাত-৭ ঘটনা-নারীর নিরাপত্তা কোথায়?

Last Updated: Wednesday, July 24, 2013 - 17:49

গত তিন দিনে শহর ও শহরতলিতে পর পর ঘটে গিয়েছে কয়েকটি শ্লীলতাহানির ঘটনা। কয়কটিতে অভিযোগ দায়ের হয়েছে, কিন্তু ব্যবস্থা নেয়নি পুলিস। কোথাও অভিযুক্তদের গ্রেফতারে চূড়ান্ত গড়িমসি নজির। কলকাতার বুকে খোদ মহাকরণের সামনে শ্লীলতাহানির অভিযোগ। মঙ্গলবার রাত ৯টা নাগাদ হাওড়া মেটিয়াব্রুজ রুটের একটি মিনিবাসে অফিসফেরত দুই মহিলার ওপর চড়াও হয় এক যুবক। অভিযোগ জানালে বাসটির পিছু ধাওয়া করে যুবককে ধরে ফেলে পুলিস। সন্ধ্যায় দমদম মেট্রো স্টেশনে স্ত্রী ও পুত্রবধূর সম্মান বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত হন এক ব্যাক্তি। অভিযুক্তদের আটক করে রেল পুলিস। টিএমসিপি নেত্রী পরিচয় দিয়ে এক মহিলা দমদমে স্টেশন সুপারের ঘরে এসে অভিযুক্তদের ছাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। অভিযুক্ত যুবকদের সিঁথি থানার হাতে তুলে দিয়েছে রেলপুলিস। শহরে একাধিক শ্লীলতাহানির ঘটনায় ফের প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে নারীদের নিরাপত্তা নিয়ে।
ঘটনা ১. ডালহৌসি এলাকায় চলন্ত বাসে এক মহিলার শ্লীলতাহানির ঘটনাটি ঘটেছে। রাত ৯টা নাগাদ মিনিবাসে করে বাড়ি ফিরছিলেন  দুই মহিলা। চলন্ত বাসের মধ্যেই এক মহিলার উপর চড়াও হয় এক যুবক। হাওড়া মেটিয়া বুরুজ রুটের মিনিবাসটি মহাকরণের কাছে আসতেই কোনও ক্রমে বাস থেকে নেমে পড়েন ওই মহিলারা। মহাকরণের সামনে ডিউটি অফিসারকে অভিযোগ জানান তাঁরা। বাসটির পিছনে ধাওয়া করে আটক করা হয় আফতাব নামে বছর ৩৫এর এক যুবককে। হেয়ার স্ট্রিট থানার পুলিস ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে।
 
ঘটনা ২. এবার শ্লীলতাহানি মেট্রোয়। মঙ্গলবার সন্ধে ছটা নাগাদ স্ত্রী এবং পুত্রবধূকে নিয়ে সেন্ট্রাল স্টেশন থেকে মেট্রোয় ওঠেন এক ব্যক্তি। অভিযোগ, ট্রেনে ওঠার সময় মহিলাদের শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে দু-তিনজন যুবক। প্রতিবাদ করায় দমদম স্টেশনে নেমে ওই ব্যক্তিকে মারধর করে ওই যুবকরা। এরপরেই দু'জনকে আটক করে রেল পুলিস। কিন্তু এর কিছুক্ষণ পরেই স্টেশন সুপারের ঘরে এসে হাজির হন এক মহিলা। এক অভিযুক্তকে নিজের ভাই পরিচয় দিয়ে তিনি দাবি করতে থাকেন, ছেড়ে দিতে হবে তাকে। ভাইদের না ছাড়লে স্টেশনে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হবেও বলে হুমকি দেন। নিজেকে ক্রমাগত তৃণমূল ছাত্র পরিষদ নেত্রী বলে পরিচয় দিচ্ছিলেন তিনি। অভিযুক্ত দুই যুবককে সিঁথি থানার হাতে তুলে দিয়েছে রেলপুলিস।
শ্লীলতাহানি থেকে বাঁচতে চলন্ত ট্রেনের কামরা থেকে  ঝাঁপ তরুণীর। দমদম মেট্রো স্টেশনে  মহিলার শ্লীলতাহানির চেষ্টা।ট্রেনের কামরায় মহিলাদের ওপর হামলার ঘটনা বেড়ে চলায় বাড়ছে উদ্বেগ। নিত্যযাত্রী থেকে শুরু করে সাধারণ গৃহবধূ, সকলেরই দুশ্চিন্তা বাড়িয়েছে  এইসব ঘটনা। লোকাল ট্রেনের নিত্যযাত্রী মহিলাদের উদ্বেগ সবচেয়ে বেশি। ট্রেনের মহিলা কামরায় নিরাপত্তারক্ষী থাকে না বলেই অভিযোগ উঠেছে।
 
ঘটনা ৩. ফুলবাগান এলাকায় লাভলি চাড্ডা নামে এক আইনজীবীর বাড়িতে নাবালিকাকে দিনের পর দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। লাভলি চাড্ডার বাড়ি থেকে পালিয়ে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার দ্বারস্থ হন ওই নাবালিকা। মেয়েটির কাছে সব কথা শুনে গত ১৯ জুলাই ফুলবাগান থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনায় শিয়ালদহ ক্রিমিনাল কোর্টের আইনজীবী সব্যসাচী রায়চৌধুরীর নাম জড়িয়েছে। নাম জড়িয়েছে মিলন নামে পুলিসের এক অফিসারেরও।
 ফুলবাগানে ধর্ষণকাণ্ডে গ্রেফতার করা হয়েছে ২ জনকে। তবে পুলিস এফআইআর নেওয়ার ২ দিন পর। আজ কাঁকুরগাছি থেকে গ্রেফতার করা হয় অন্যতম অভিযুক্ত পেশায় আইনজীবী সব্যসাচী রায়চৌধুরীকে। আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করা হয়েছে নির্যাতিতা মেয়েটির মাকেও। আজ সকালেই শিয়ালদহ স্পেশাল কোর্টের ম্যাজিস্ট্রেট গ্ল্যাডি বোমজানের কাছে গোপন জবানবন্দি দেন নির্যাতিতা।
ঘটনা ৪. শনিবার রাতে ময়দানে আড়াই বছরের শিশুকন্যাকে যৌন নিগ্রহ এবং খুনের ঘটনা ঘটে। দেরিতে অভিযোগ নিলেও রেসকোর্সের অভিযুক্ত এক সহিসকে এই ঘটনায় গ্রেফতার করেছে পুলিস। কিন্তু তারপর থেকেই শুরু হয়েছে নতুন আতঙ্ক।  খিদিরপুর ফ্লাইওভারের নীচে আশ্রয় নেওয়া ছিন্নমূল পরিবারগুলিকে রোজ ভয় দেখানো হচ্ছে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য। রাজনৈতিক দলের তরফেই এই হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে তাঁদের অভিযোগ।
শুধু কলকাতা নয় তৎসংলগ্ন এলাকা ও জেলায় ঘটে যাওয়া আরও কয়েকটি ঘটনায় ফের প্রশ্নের মুখে জেলায় মহিলাদের নিরাপত্তাও।

ঘটনা ৫.  হাওড়ায় মুম্বই থেকে আসা এক তরুণীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে রতন সাউ নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে গোলাবাড়ি থানার পুলিস। রাত ৯ টায় মেটিয়াবুরুজ রুটের এক মিনিবাসে শ্লীলতাহানির অভিযোগে আফতাপ নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে হেয়ারস্ট্রিট থানার পুলিস। মঙ্গলবারই মেট্রোরেলের সেন্ট্রাল স্টেশনে মহিলাদের শ্লীলতাহানির প্রতিবাদ করার এক ব্যক্তিকে মারধর করে অভিযুক্ত দুই যুবক। তাদের সিঁথি থানার হাতে তুলে দিয়েছে রেলপুলিস। 
ঘটনা ৬. ভিড়ে ঠাসা বেলঘরিয়া স্টেশনে মহিলাকে কটূক্তি এবং মারধরের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।  গতকাল রাতে মেয়েকে নিয়ে বেলঘরিযা থেকে আগরপাড়া ফিরছিলেন এক মহিলা। মহিলার অভিযোগ, বেলঘরিয়া স্টেশনে কয়েকজন যুবক তাঁদের উদ্দেশে কটুক্তি করে। এমনকি তাঁকে লক্ষ করে লোহার রড ছুড়েও মারে। পরে  অন্যান্য যাত্রীরা রুখে দাড়ালে ওই যুবকরা ট্রেনে উঠে পালায়। তার অগে অবশ্য মহিলা ও তাঁর মেয়ের গায়ে পানের পির ফেলার চেষ্টা করে ওই যুবকেরা।  বেলঘরিয়ার জিআরপির কাছে এই বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
 
ঘটনা ৭. বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাড়িতে ঢুকে মারধর করা হয়েছিল কিশোরীকে। সেই অপমানে কিশোরীর আত্মহত্যার অভিযোগ ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল নৈহাটির পালবাগানে। আজ সকালে বছর ষোলোর ওই কিশোরীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় তার বাড়ি থেকে। পরিবারের বক্তব্য, স্থানীয়  যুবক গৌতম পাসোয়ানের সঙ্গে ওই কিশোরীর দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিল। বিয়ে করতে অস্বীকার করায় গতকাল কিশোরীর বাড়িতে ঢুকে তাকে মারধর করে গৌতম। বাধা দিতে গেলে কিশোরীর ভাইকেও মারধর করে ওই যুবক।  অপমানে রাতেই ওই কিশোরী আত্মঘাতী হয় বলে দাবি পরিবারের। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত গৌতম পাসোয়ান। পুলিস অস্বাভাবিক মৃত্যুর অভিযোগে তদন্ত শুরু করেছে। 



First Published: Wednesday, July 24, 2013 - 17:52


comments powered by Disqus