কলকাতায় আসছেন না রুশদি

কলকাতায় আসছেন না রুশদি

কলকাতায় আসছেন না রুশদিরাজ্য সরকারের আপত্তিতে  বাতিল হয়ে গেল সলমন রুশদির কলকাতা সফর। "মিডনাইটস চিলড্রেন" ছবির প্রচারে কলকাতায় আসার কথা ছিল বিতর্কিত এই সাহিত্যিকের। তবে পুলিসের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, রুশদির সফরে  নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা সম্ভব নয়। ফলে বাতিল করে দিতে হয় রুশদির কর্মসূচি।

সলমন রুশদির উপন্যাসের ভিত্তিতে নির্মিত দীপা মেহেতার "মিডনাইটস চিলড্রেন" । সেই ছবির প্রচারে বুধবার কলকাতায় আসার কথা ছিল বিতর্কিত সাহিত্যিক সলমন রুশদির। তবে শেষ মূহুর্তে বেঁকে বসে রাজ্য সরকার। পুলিস-প্রশাসনের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় রুশদির সফরকে ঘিরে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। ফলে বাতিল করে দিতে হয় রুশদির কর্মসূচি। এই ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক বলে আখ্যা দিয়েছেন সাহিত্যিত অমিতাভ ঘোষ।

কলকাতা পুলিসের যুগ্মকমিশনার জাভেদ শামিম অবশ্য জানিয়েছেন, রুশদির কলকাতা সফরের বিষয়ে আগে থেকে কিছুই জানা ছিল না তাঁদের। স্যাটানিক ভার্সেস-য়ের লেখকের কলকাতা সফরকে কেন্দ্র করে এদিন সকাল থেকে বিক্ষোভ শুরু হয় দমদম বিমানবন্দর চত্বরে।  তবে কর্মসূচি বাতিলের পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যায় বলে খবর।

প্রচার নিয়ে বিতর্ক দেখা দিলেও মিডনাইটস চিলড্রেনের শুরুটা ছিল সাফল্যের খতিয়ান। ১৯৮০ সালে প্রথম প্রকাশিত হয় সলমন রুশদির বহু চর্চিত এই উপন্যাস।  ১৯৮১ সালে মিডনাইটস চিলড্রেনের জন্য বুকার সম্মান ছিনিয়ে নেন রুশদি। এখানেই শেষে নয়। ১৯৯৩ সালে এই উপন্যাসের জন্যই রুশদির হাতে উঠে আসে বুকার অফ বুকারসের সম্মান। অর্থাত্ বুকার সম্মানের শুরু থেকে তিরানব্বই সাল পর্যন্ত শ্রেষ্ঠ উপন্যাস হিসেবে বিবেচিত হয় রুশদির মিডনাইটস চিলড্রেন। তবে  উপন্যাসের ভিত্তিতে বানানো ছবির প্রচারের জন্য মহানগরে পা রাখতে পারলেন না রুশদি। নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে রুশদির কলকাতা সফর বাতিল হওয়ায় হতাশ অনেকেই।

গত বছর জয়পুর সাহিত্য সভা সলমন রুশদির যোগ দেওয়া নিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখায় কয়েকটি সংখ্যালঘু সংগঠন। সেই সময়ও তাঁর ভারত সফর বাতিল করা হয়। সরকারি সূত্রে জানান হয় লেখককে খুন করার পরিকল্পনা করছে মুম্বই আন্ডার-ওয়ার্ল্ডের একাংশ। পরে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তাঁর বক্তৃতার সিদ্ধান্ত হলে, বিক্ষোভের জেরে তাও বাতিল করতে বাধ্য হন সভার উদ্যোক্তারা।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৮-তে প্রকাশিত `দ্য স্যাটানিক ভার্সেস` এখনও ভারতে নিষিদ্ধ।






First Published: Wednesday, January 30, 2013, 20:15


comments powered by Disqus