বিনস স্যালাড

বাঙালি বাড়ির বিকেলের জলখাবারে দীর্ঘকাল তেলেভাজা আর সিঙারার একচ্ছত্র আধপত্য কায়েম থাকলেও এবার বোধহয় তা ভাঙতে চলেছে। নতুন প্রজন্ম অনেক বেশি স্বাস্থ্য সচেতন। আর তাই স্ন্যাকসের পাশাপাশি জায়গা করে নিচ্ছে নানাধরণের লো ফ্যাট ফুড। বিনস সালাড সেরকমই একটি রেসিপি। খাবারের সঙ্গে সালাড হিসেবে খেলেও অতিরিক্ত তেল মশলার পরিপূরক হিসেবে কাজ করবে এই সালাড। মুখের স্বাদ বদলাতে বা অবসাদ কাটাতেও এর জুড়ি মেলা ভার।

Updated: Sep 27, 2012, 04:45 PM IST

বাঙালি বাড়ির বিকেলের জলখাবারে দীর্ঘকাল তেলেভাজা আর সিঙারার একচ্ছত্র আধপত্য কায়েম থাকলেও এবার বোধহয় তা ভাঙতে চলেছে। নতুন প্রজন্ম অনেক বেশি স্বাস্থ্য সচেতন। আর তাই স্ন্যাকসের পাশাপাশি জায়গা করে নিচ্ছে নানাধরণের লো ফ্যাট ফুড। বিনস স্যালাড সেরকমই একটি রেসিপি। খাবারের সঙ্গে স্যালাড হিসেবে খেলেও অতিরিক্ত তেল মশলার পরিপূরক হিসেবে কাজ করবে এই সালাড। মুখের স্বাদ বদলাতে বা অবসাদ কাটাতেও এর জুড়ি মেলা ভার।
কী কী লাগবে
হোয়াইট বিনস (চাউলি):- ১/৪ কাপ
রেড কিডনি বিনস (রাজমা):- ১/৪ কাপ
গোটা মুগ:- ১/৪ কাপ
ফ্রেঞ্চ বিনস:- ১০০ গ্রাম
পেঁয়াজ:- ১টি মাঝারি সাইজের
ধনেপাতা:- আধ কাপ কুচোনো
পুদিনা পাতা:- ১/৩ কাপ
কাঁচালঙ্কা:- ২টি
পাতিলেবুর রস:- ৩ টেবিল চামচ
চাট মশলা:- আধ চা চামচ
নুন:- পরিমান মতো
জল:- ৩ চেবিল চামচ
কীভাবে বানাবেন
চাউলি ও রাজমা আলাদা আলাদা ভাবে রাতভর জলে ভিজিয়ে রেখে জল ঝরিয়ে নিয়ে নুন জলে আলাদা আলাদা ভাবে সিদ্ধ করে নিন। গোটা মুগ ২ ঘণ্টা জলে ভিজিয়ে রেখে জল ঝরিয়ে নিন। ফ্রেঞ্চ বিনস ছোট ছোট টুকরোয় কেটে নুন জলে সিদ্ধ করে জল ঝরিয়ে নিন। পেঁয়াজ, কাঁচালঙ্কা, ধনে পাতা কুচি করে নিন। লেবুর রস সমপরিমান জলের সঙ্গে মিশিয়ে পাতলা করে নিয়ে ধনেপাতা কুচি, কাঁচালঙ্কা কুচি, পুদিনা ও চাট মশলা দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে এক ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিন। একটি বড় কাঁচের পাত্রে চাউলি, রাজমা, মুগ, ফ্রেঞ্চ বিনস, পেঁয়াজ কুচি দিয়ে লেবুর রসের মিশ্রণ ঢেলে ভালো করে ঝাঁকিয়ে মিশিয়ে নিয়ে পরিবেশন করুন।
উপরে পুদিনা পাতা, কাঁচা লঙ্কা ও পাতিলেবুর টুকরো দিয়ে গার্নিশ করতে পারেন।