চকোলেট মাইস

দীপাবলি মানে দেদার খাওয়া দাওয়া, বাজি আর গিফ্টের সমাহার। সময়ের সঙ্গে গিফ্টের বাহার বাড়লেও চকোলেট বরাবরই হৃদয়ের প্রিয়তম আসনেই থাকবে। কেমন হয় যদি কেনা চকোলেটের বদলে বাড়িতেই নিজের হাতে বানিয়ে দেওয়া যায় অসাধারণ চকোলেট? আর চকোলেট মাইস বানিয়ে দিলে তো কথাই নেই। দীপাবলির সঙ্গে ভাগ্যও খুলবে, ভূত চতুর্দশীর একটা ভয় ভয় ব্যাপারও, আসবে আবার হাইটেক চকোলেটে বাচ্চারাও ব্যাপক খুশি।

Updated: Nov 12, 2012, 07:59 PM IST

দীপাবলি মানে দেদার খাওয়া দাওয়া, বাজি আর গিফ্টের সমাহার। সময়ের সঙ্গে গিফ্টের বাহার বাড়লেও চকোলেট বরাবরই হৃদয়ের প্রিয়তম আসনেই থাকবে। কেমন হয় যদি কেনা চকোলেটের বদলে বাড়িতেই নিজের হাতে বানিয়ে দেওয়া যায় অসাধারণ চকোলেট? আর চকোলেট মাইস বানিয়ে দিলে তো কথাই নেই। দীপাবলির সঙ্গে ভাগ্যও খুলবে, ভূত চতুর্দশীর একটা ভয় ভয় ব্যাপারও, আসবে আবার হাইটেক চকোলেটে বাচ্চারাও ব্যাপক খুশি।
কী কী লাগবে
চকোলেট: ১০০ গ্রাম
টক ক্রিম: ৫ টেবিল চামচ
চকোলেট বিস্কুট ক্রাম্ব: ১২৫ গ্রাম
সাজানোর জন্য
চকোলেট বিস্কুট ক্রাম্ব: ৫ টেবিল চামচ
আইসিং সুগার: ৫ টেবিল চামচ
রুপোলি বল: ২৪ (চোখের জন্য)
আমন্ড: ২৫ টা
ক্যান্ডি: ১২টা স্ত্রিং

কীভাবে বানাবেন

চকোলেট গলিয়ে নিয়ে টক ক্রিমের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। চকোলেট বিস্কুট ক্রাম্ব ঢেলে মিশিয়ে ফেলুন। ঢাকা দিয়ে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে রাখুন। ঠান্ডা চকোলেট টেবিল চামচে করে তুলে বল আকারে গড়ে নিন। একদিকে ছোট্ট মোল্ড করে ইঁদুরের নাক বানিয়ে নিন। প্রতিটা মাইস প্রথমে আইসিং সুগার ও পরে চকোলেট বিস্কুট ক্রাম্বে রোল করে নিন। প্রতিটা ইঁদুরে রুপোলি বল দিয়ে চোখ বানিয়ে নিন। সবশেষে আমন্ড ফ্লেক দিয়ে কান বানান। অন্তত ২ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখবেন নাহলে ভাল করে জমাট বাঁধবে না।
চকোলেট মাইস তৈরি করে ট্রেতে সাজিয়ে পছন্দ মতো র‌্যাপিং করে গিফ্ট করুন।