নরমাংস পরিবেশন করার ভুয়ো খবরে বিপর্যয়ের মুখে লন্ডনের ভারতীয় রেস্তোরাঁ

নরমাংস দেওয়ার ভুয়ো খবরে বন্ধের মুখে লন্ডনের ভারতীয় রেস্তোরাঁ। খারি টুইস্ট নামের ভারতীয় রেস্তোরাঁয় নাকি মানুষের মাংস দেওয়া হচ্ছে। একটি ফেক নিউজ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফেসবুকে মুহূর্তে ভাইরাল খবরটি। রেস্তোরাঁয় ধুন্ধুমার। ভাঙচুর রেস্টুরেন্ট।

Updated: May 18, 2017, 11:14 PM IST
নরমাংস পরিবেশন করার ভুয়ো খবরে বিপর্যয়ের মুখে লন্ডনের ভারতীয় রেস্তোরাঁ

ওয়েব ডেস্ক: নরমাংস দেওয়ার ভুয়ো খবরে বন্ধের মুখে লন্ডনের ভারতীয় রেস্তোরাঁ। খারি টুইস্ট নামের ভারতীয় রেস্তোরাঁয় নাকি মানুষের মাংস দেওয়া হচ্ছে। একটি ফেক নিউজ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফেসবুকে মুহূর্তে ভাইরাল খবরটি। রেস্তোরাঁয় ধুন্ধুমার। ভাঙচুর রেস্টুরেন্ট।

দাউ দাউ আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়েছিল খবরটা। দক্ষিণ-পূর্ব লন্ডনের খারি টুইস্ট নামের এই ভারতীয় রেস্তোরাঁয় নাকি মানুষের মাংস দেওয়া হচ্ছে। একটি ফেক নিউজ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় খবরটি।

রেস্তোরাঁর ফ্রিজ থেকে ৯টি মৃতদেহ উদ্ধার হয় বলে লেখা ছিল ওই ভুয়ো খবরে। মানুষের মাংস বিক্রির জন্য রেস্টুরেন্ট মালিককে গ্রেফতার করা হয় বলেও উল্লেখ ছিল সেখানে। এর পরেই ধুন্ধুমার চলে রেস্টুরেন্টে। ক্ষুব্ধ জনতা ভাঙচুরও চালায় সেখানে।  ক্রমশই কমতে থাকে ক্রেতা। আসতে থাকে একাধিক হুমকি ফোন। ক্রেতাদের হুমকির মুখে পড়ে বন্ধই হতে চলেছে খারি টুইস্ট। চরম আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন বলে দাবি রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষের।

১৯৫৭ সালে তৈরি হয় খারি টুইস্ট। মাঝে মদ বিক্রি নিয়ে একটি সমস্যা তৈরি হওয়ায় বন্ধ হয়ে যায় রেস্তোরাঁটি। ২০১৫ সালে ফের খোলে এটি। ফের বিতর্ক। প্রায় বন্ধ খারি টুইস্ট। ফেক নিউজের বিরুদ্ধে পুলিসে অভিযোগ জানিয়েছে রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ।