মুড়ির মোয়া, চিঁড়ের মোয়া ও খইয়ের মুড়কি

মা লক্ষ্মীর নৈবেদ্যর থালায় প্রায় রাজার আসনে থাকে মুড়কি। নতুন গুড়ের সঙ্গে মুড়ি, চিঁড়ে বা খইয়ের পাকে মোয়া-মুড়কির স্বাদ অতুলনীয়। সারা শীতকালটাই বাঙালির বিকেলের জলখাবারের যোগান দেয় মুড়কি। শীতে জুবুথুবু সন্ধেবেলায় গরম চায়ের সঙ্গে মুড়ির মোয়া আর জমিয়ে আড্ডা। বহুপুরাতন। তবু রসনাতৃপ্তিতে চিরনবীন।

Updated: Oct 28, 2012, 02:33 PM IST

মা লক্ষ্মীর নৈবেদ্যর থালায় প্রায় রাজার আসনে থাকে মুড়কি। নতুন গুড়ের সঙ্গে মুড়ি, চিঁড়ে বা খইয়ের পাকে মোয়া-মুড়কির স্বাদ অতুলনীয়। সারা শীতকালটাই বাঙালির বিকেলের জলখাবারের যোগান দেয় মুড়কি। শীতে জুবুথুবু সন্ধেবেলায় গরম চায়ের সঙ্গে মুড়ির মোয়া আর জমিয়ে আড্ডা। বহুপুরাতন। তবু রসনাতৃপ্তিতে চিরনবীন।
মুড়ির মোয়া
কী কী লাগবে

মুড়ি: ৫০০ গ্রাম
গুড়: ২৫০ গ্রাম
নুন: পরিমান মত
কীভাবে বানাবেন
প্রথমে গুড় কড়াইয়ে জ্বাল দিয়ে নিতে হবে। গুড়ে আঁশ হয়ে গেলে মুড়ির মধ্যে ঢেলে দিন। গুড় আর মুড়ি মিশে গেলে বিভিন্ন আকার অনুযায়ী মোয়া তৈরি করে নিন। গুড় আঠালো অবস্থায় থাকতে থাকতেই মোয়া বানিয়ে ফেলতে হবে। বানানো হয়ে গেলে কোটোয় ভরে রেখে দিন।

চিঁড়ের মোয়া
কী কী লাগবে

চিঁড়ে: ৫০০ গ্রাম
গুড়: ২০০ গ্রাম
গোলমরিচ গুঁড়ো: পরিমান মত
কীভাবে বানাবেন
প্রথমে চিঁড়ে ভালভাবে পরিষ্কার করে নিন। পরিষ্কার করা চিঁড়ে শুকনো খোলায় ভেজে নিন। কাঠের খোলা হলে ভাল হয়। চিঁড়ে লাল লাল হয়ে গেলে এতে গুড় ঢেলে দিন। এবারে একসঙ্গে গুড় ও চিঁড়ে কষাতে হবে। কষানোর সময় কাঠি বা কোনো কিছু দিয়ে সারাক্ষণ নাড়তে হবে যেন গুড় ও চিঁড়ে লেগে না যায়। আঠালো হয়ে গেলে গোলমরিচের গুঁড়ো ছড়িয়ে নামিয়ে নিন। চিঁড়ে ঠান্ডা হয়ে গেলে মোয়া তৈরি করতে পারবেন না। তাই গরম থাকা অবস্থায়ই মোয়া বানিয়ে ফেলতে হবে।

খইয়ের মুড়কি
কী কী লাগবে

খই: ৫০০ গ্রাম
গুড় ৩০০ গ্রাম
কীভাবে বানাবেন
গুড় কড়াইয়ের মধ্যে জ্বাল দিয়ে নিন। এবারে একই নিয়মে গুড়ে আঁশ হয়ে গেলে খইয়ের মধ্যে ঢেলে দিতে হবে। আঠালো হয়ে এলে নামিয়ে নিয়ে মুড়কি গড়ে নিন।