বিকেলের চায়ের আড্ডায় জমিয়ে খান ফিস ফিরিঙ্গি ফ্রাই

ভাজাভুজি মানেই যে শুধু আলুর চপ, পেঁয়াজি বা চিকেন পকোড়া, তেমন ভাবার কোনও কারণ নেই! আজ সন্ধের চায়ের আড্ডায় বানিয়ে ফেলুন মুচমুচে মুখরোচক ফিস ফিরিঙ্গি ফ্রাই।

Updated: Aug 7, 2018, 04:20 PM IST
বিকেলের চায়ের আড্ডায় জমিয়ে খান ফিস ফিরিঙ্গি ফ্রাই

বর্ষার বিকেল মানেই গরম চা বা কফির সঙ্গে একটু মুচমুচে ভাজাভুজি যদি খাওয়ার জন্য মনটা একটু উসখুশ করতে থাকে। তবে ভাজাভুজি মানেই যে শুধু আলুর চপ, পেঁয়াজি বা চিকেন পকোড়া, তেমন ভাবার কোনও কারণ নেই! কিন্তু রোজ রোজ নিত্য নতুন জলখাবার কী বানাবেন, সেটা ভেবে বের করাটাই তো সবচেয়ে কঠিন কাজ! তবে আজ চিন্তা নেই। সন্ধের চায়ের আড্ডায় বানিয়ে ফেলুন মুচমুচে মুখরোচক ফিস ফিরিঙ্গি ফ্রাই। উপকরণও আহামরি কিছু নয়! পদ্ধতিও তেমন জটিল কিছু নয়। তবে স্বাদ, অপূর্ব!

আরও পড়ুন: বিকেলে চায়ের সঙ্গে থাকুক মুচমুচে নুডলস্ পকোড়া

ফিস ফিরিঙ্গি ফ্রাই বানাতে লাগবে:—

৮ টুকরো মাঝারি মাপের ভোলা মাছের ফিলে (৪ জনের জন্য বানাতে), ভাজার জন্য পরিমাণ মতো সাজা তেল, আধা কাপ পেঁয়াজবাটা, ২ টেবিল চামচ আদাবাটা, ২ টেবিল চামচ রসুনবাটা, স্বাদ মতো নুন, আন্দাজ মতো গোলমরিচের গুঁড়ো, ২ চা চামচ কাঁচালঙ্কাবাটা, ৩ কাপ ব্রেডক্রাম বা পাঁওরুটির গুঁড়ো, আধা চামচ ভিনিগার, ৩ টেবিল চামচ ময়দা।

আরও পড়ুন: বিকেলে চায়ের সঙ্গে জমিয়ে খান ব্রেড কাটলেট

ফিস ফিরিঙ্গি ফ্রাই বানানোর পদ্ধতি:—

প্রথমে মাছের ফিলেগুলোতে আদাবাটা, রসুনবাটা, পেঁয়াজবাটা, ভিনিগার, সামান্য নুন আর গোলমরিচের গুঁড়ো মাখিয়ে অন্তত ৪৫ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন।

১ কাপ জলে ময়দা গুলে রাখুন। মাছ ম‍্যারিনেট হয়ে গেলে, ফ্রিজ থেকে বের করে নিন। স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এসে গেলে একটি করে মাছ ময়দার মিশ্রণে ডুবিয়ে, ব্রেডক্রাম মাখিয়ে ছাঁকা তেলে ভেজে তুলুন!

সবকটি ফিলে ভাজা হয়ে গেলে স্বাদমতো আরও একবার বিটনুন আর গোলমরিচের গুঁড়ো বা চাটমশলা ছড়িয়ে সালাডের সঙ্গে সাজিয়ে পরিবেশন করুন মুচমুচে মুখরোচক ফিস ফিরিঙ্গি ফ্রাই। সঙ্গে চা থাকুক বা কফি, ফিস ফিরিঙ্গি ফ্রাই ফুরোবে তার আগেই!

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close