নিশানায় মমতা, লোকসভায় তৃণমূল নেত্রীকে বিঁধলেন অধীর

Last Updated: Friday, March 8, 2013 - 22:44

রেলবাজেটে বাংলার প্রাপ্তি নিয়ে তৃণমূলনেত্রীর বঞ্চনার অভিযোগের জবাব দিলেন রেলপ্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী। তৃণমূলের হাতে রেলমন্ত্রক থাকার সময় রাজ্যের জন্য যেসব প্রকল্প ঘোষণা করা হয়েছিল, তার বেশিরভাগই অথৈ জলে পড়ে রয়েছে। স্পষ্ট জানিয়েছেন অধীর চৌধুরী।
মুখ্যমন্ত্রী শত অভিযোগকে মানতে নারাজ রেলপ্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী। অধীর চৌধুরী কার্যত কটাক্ষের সুরে বলেন, "মনে হয় বাজেট ডকুমেন্ট পড়েনি।" রেলমন্ত্রক তৃণমূলের হাতে থাকাকালীন পশ্চিমবঙ্গের জন্য যা যা প্রকল্প ঘোষিত হয়েছে, তার কাজ কতটা এগিয়েছে, তা নিয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশের কথা আগেই বলেছিলেন অধীর চৌধুরী।  শুক্রবার লোকসভায় দাঁড়িয়ে বিঁধলেন তৃণমূলকে। 
 
রেলপ্রতিমন্ত্রী যেদিন লোকসভায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন, ঘটনাচক্রে সে দিনই রেলমন্ত্রককে একহাত নিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী। কিন্তু রেলপ্রতিমন্ত্রীর তথ্য বলছে মুখ্যমন্ত্রীর চ্যালেঞ্জ আদৌ মসৃণ নয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী থাকাকালীন সিঙ্গুরের মানুষের জন্য কিষাণ ভিশন প্রকল্প ঘোষণা করেছিলেন। ২০০৯ সালে ওই প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হয়। কিন্তু এখনও ওই প্রকল্প অথৈ জলে।
 
 মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী থাকাকালীন নন্দীগ্রামের মানুষের জন্য জেলিংহামে ওয়াগন কম্পোনেন্ট ফ্যাক্টরি নির্মাণের কথা ঘোষণা করেন। অধীর চৌধুরী জানিয়েছেন, ওই প্রকল্পের জন্য জমি চিহ্নিত হয়েছে। শেষ হয়েছে সার্ভে। সেচ দফতরেরও সম্মতি মিলেছে। কিন্তু পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসন এখনও রাস্তা চওড়া করার অনুমতি না দেওয়ায় প্রকল্পের কাজ থমকে রয়েছে।
 
এরপর জঙ্গলমহল। রেলমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা ছিল, ২৮৯ কোটি টাকা ব্যয়ে ভাদুতলা ঝাড়গ্রাম ভায়া লালগড় রেলপথ নির্মাণ হবে। প্রতিশ্রুতিমতো এই প্রকল্পের অর্ধেক খরচ রাজ্য সরকারের দেওয়ার কথা। অধীর চৌধুরীর অভিযোগ, রাজ্য তা না দেওয়ায় প্রকল্প অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এর পাশাপাশি রেলপ্রতিমন্ত্রীর দাবি, সংস্কারমুখী বাজেটের মধ্যেও বাংলাকে সাধ্যমতো সুযোগ সুবিধা দেওয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রাজ্যে রেলের তিনটি জোনের উন্নয়নে বাজেটে মোটা অঙ্কের অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে। ইস্টার্ন জোনে বরাদ্দ করা হয়েছে ৪৭৪২.৯১ কোটি টাকা। সাউথ-ইস্টার্ন জোনে বরাদ্দ হয়েছে ২৮৫৩.০৯ কোটি টাকা। নর্দার্ন ফ্রন্টিয়ার জোনে বরাদ্দ হয়েছে ৪২৬৮.১৪ কোটি টাকা। ৩৪৭টি প্রকল্পের মধ্যে ৭৫টি এরাজ্যের জন্য। ৬৭টি নতুন ট্রেনের মধ্যে ৮টি ট্রেন পেয়েছে বাংলা।
 



First Published: Saturday, March 9, 2013 - 09:03


comments powered by Disqus
Live Streaming of Lalbaugcha Raja