দশম দিনেও অব্যাহত এয়ার ইন্ডিয়ার অচলাবস্থা

এয়ারইন্ডিয়ার ধর্মঘট আজ দশম দিনে পড়ল। দিন দশেকের ধর্মঘটে জেরে চরম দুর্ভোগের শিকার যাত্রীরা। ধর্মঘট নিয়ে আজই  রায় দেওয়ার কথা দিল্লি হাইকোর্টের। গত ৯ মে, দিল্লি হাইকোর্টের রেভা ক্ষেত্রপালের বেঞ্চ ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার বিপক্ষে রায় দেয়।

Updated: May 17, 2012, 01:02 PM IST

এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলটদের ধর্মঘটকে বেআইনি ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্টও। পাইলটদের ধর্মঘটকে বেআইনি ঘোষণার দাবিতে দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ। এর পর ধর্মঘট বেআইনি বলে ঘোষণা করেছিল আদালত। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন পাইলটরা। কিন্তু বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের রায় বহাল রাখল সুপ্রিম কোর্ট। ফলে পাইলটদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের যাবতীয় রাস্তা খোলা থাকল এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষের কাছে।
এয়ারইন্ডিয়ার ধর্মঘট বৃহস্পতিবার দশম দিনে পড়ল। দিন দশেকের ধর্মঘটে জেরে চরম দুর্ভোগের শিকার যাত্রীরা। ধর্মঘট নিয়ে আজই  রায় দেওয়ার কথা দিল্লি হাইকোর্টের। গত ৯ মে, দিল্লি হাইকোর্টের রেভা ক্ষেত্রপালের বেঞ্চ ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার বিপক্ষে রায় দেয়। ধর্মঘটকে বেআইনি ঘোষণা করেন তিনি। একজন বিচারপতির বেঞ্চের ওই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দু`জন বিচারপতিকে নিয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চে মামলা করেন ধর্মঘটী পাইলটরা। বিচারপতি সঞ্জয় কিষাণ কলের নেতৃত্বধীন বেঞ্চে মামলা দায়ের করা হয়। গতকাল রায় দেওয়ার কথা থাকলেও, তা স্থগিত হয়ে যায়। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী অজিত সিং জানিয়ে দিয়েছেন, পাইলটরা কাজে যোগ দিলে তবেই তাঁদের দাবি পূরণের বিষয়ে আলোচনা শুরু করবে সরকার। এই চাপানউতোর আর আইনি লড়াইয়ের মধ্যেই গতকাল কাজে যোগ দিয়েছেন তিনজন ধর্মঘটী বিমানচালক। এই প্রথম ধর্মঘট থেকে বেরিয়ে এসে কাজে যোগ দিলেন ধর্মঘটীদের তিনজন।