ফিট জেটলি, শীঘ্রই কাজে ফিরছেন ‘অর্থমন্ত্রী’

ঘরে বসেই দেশের হাল হকিকত নিয়ে নিজের মতামত প্রকাশ করছেন জেটিলি। কখনও জিএসটি, কখনও ফেডারেল ফ্রন্টের সমালোচনা কখনও বা অসমে নাগরিক পঞ্জি নিয়ে সরব হতে দেখা গিয়েছে তাঁকে

Updated: Aug 8, 2018, 02:07 PM IST
ফিট জেটলি, শীঘ্রই কাজে ফিরছেন ‘অর্থমন্ত্রী’
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: দফতরে ফিরছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। জানা যাচ্ছে, অগাস্টেই অর্থমন্ত্রকের ভার ফেরত নিতে চলেছেন তিনি। শারীরিক অসুস্থতার কারণে বেশ কিছুদিন বিশ্রামে ছিলেন অর্থমন্ত্রী। যদিও ঘরে বসেই মন্ত্রক সামলাচ্ছিলেন বলে খবর সংশ্লিষ্ট মহল সূত্রে।

অর্থমন্ত্রকের মুখপাত্র ‘দ্য হিন্দু’-কে জানিয়েছেন, “অগাস্টেই অর্থমন্ত্রকের ভার নেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে অরুণ জেটলির। তবে, নির্দিষ্ট তারিখ এখনই বলা যাচ্ছে না।” বর্তমানে জেটলির অনুপস্থিতে অর্থমন্ত্রকের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন রেল এবং কয়লা মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল।

আরও পড়ুন- মরণের পরও অব্যাহত জয়ের ধারা : কালাইনারের সমাধি মেরিনা সৈকতেই

উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন ধরে কিডনি সমস্যায় ভুগছিলেন অরুণ জেটলি। গত এপ্রিল থেকে বন্ধ করে দিয়েছিলেন দফতরে আসা। মে মাসে কিডনি প্রতিস্থাপন হয় তাঁর। তবে, দু’মাস পর ১ জুলাই জিএসটি-র বর্ষপূর্তি উপলক্ষে  জনসমক্ষে আসেন জেটলি। এ দিন পীযূষ গোয়েলকে সামনে রেখে জিএসটির সুফল তুলে ধরেন তিনি।

আরও পড়ুন- রাজ্যসভার নির্বাচনে বিরোধী ঐক্যে বড়সড় ফাটল, প্রার্থী ঘোষণা করল কংগ্রেস

ঘরে বসেই দেশের হাল হকিকত নিয়ে নিজের মতামত প্রকাশ করছেন জেটিলি। কখনও জিএসটি, কখনও ফেডারেল ফ্রন্টের সমালোচনা কখনও বা অসমে নাগরিক পঞ্জি নিয়ে সরব হতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। তাঁর ব্লগে নিয়মিত লিখে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে মতামতও দিচ্ছেন জেটলি। বিরোধীরা কটাক্ষ করে বলছেন, অর্থমন্ত্রক পীযূষ গোয়েলের হাতে থাকলেও বকলমে তো জেটলিই দেখছেন। এ নিয়ে মজার ঘটনাও ঘটে সংসদে। গত মাসে সংসদে এক প্রশ্নোত্তর পর্বে আলোচনা করতে গিয়ে মুখ ফসকে অরুণ জেটলিই অর্থমন্ত্রী বলে বসেন সড়ক ও পরিবহণ মন্ত্রী নিতিন গডকরি। তাঁর বেফাঁস উক্তি পাকড়াও করতে বেশিক্ষণ সময় নেননি বিরোধীরা। তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় কটাক্ষ করেন, “অর্থমন্ত্রী এখন কে? জেটলি না পীযূষ?” নিতিনের ভ্রান্তিবিলাসে কার্যত বিপাকে পড়েন আডবাণী-সহ অন্যান্য বিজেপি নেতারা। সে সময় নিতিন ড্যামেজ কন্ট্রল করার চেষ্টা করলেও আদতে সত্যিই কথাই তো বললেন বলে কটাক্ষ বিরোধীদের।

আরও পড়ুন- রাজাজি হলে কালাইনারকে শেষ শ্রদ্ধা প্রধানমন্ত্রীর

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close