রাজধানীতে সরকার-পুলিস সংঘাত চরমে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সামনে ধরনায় বসার জন্য যাওয়ার সময় মুখ্যমন্ত্রীর গাড়ি আটকালো পুলিস

Last Updated: Monday, January 20, 2014 - 11:37

রাজধানীতে সরকার-পুলিস সংঘাত চরমে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সামনে ধরনায় বসার জন্য আসার সময় রেল ভবনেড় কাছে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গাড়ি আটকালো দিল্লি পুলিস। সমগ্র অঞ্চলটি পুলিস ঘিরে রেখেছে।

দিল্লির এক পুলিস অফিসারের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার আভিযোগ এনে তাঁর অপসারণের দাবিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডের নর্থ ব্লক অফিসের সামনে ধরনায় বসার কথা চিল রাজধানীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও তাঁর বিধায়কদের।

দিল্লির আইনমন্ত্রী সোমনাথ ভারতী অভিযোগ করেন দক্ষিণ দিল্লিতে যেখানে মূলত আফ্রিকান বসতি সেখানে নাকি ড্রাগ ও যৌন ব্যবসা চলে। সেই অনুযায়ী তিনি দিল্লি পুলিস আধিকারিকদের কাছে দাবি তোলেন ওই বসতি গুলিতে খানাতল্লাশি করার। কিন্তু কোনও তথ্য প্রমাণ ছাড়া দিল্লি পুলিসের আধিকারিক শুধুমাত্র আইনমন্ত্রীর নির্দেশের উপর ভিত্তি করে তল্লাশি চালাতে অস্বীকার করেন।

যদিও তারপর সোমনাথ ভারতী, দলবল সহ পুলিসকে বাধ্য করে ওই আফ্রিকান বসতিতে তল্লাশি চালান। মাঝরাতে মহিলাদের জোর করে বাড়ির বাইরে নিয়ে আসেন। ভারতীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি ও তাঁর দলবল ওই মহিলাদের উদ্দেশ্যে কটূক্তি শুধু নয় বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যও করেন। শ্লীলতাহানির অভিযোগও এনেছেন ওই মহিলারা। দিল্লির লেফট্যান্ট গভরনরের কাছে ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে দিল্লি পুলিসের পক্ষ থেকে।

অন্যদিকে শিন্ডে জানিয়েছেন এই বিষয়ে তদন্ত চলছে। তদন্তের রিপোর্ট আসার আগে এই বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব নয়।

আইনমন্ত্রীর কথা মত কাজ করতে অস্বীকার করায় দিল্লি পুলিসের ওই আধিকারিকের অপসারণ বা বদলির দাবিতে আজ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দফতরের সামনে ধর্নায় বসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কেজরিওয়াল ও তাঁর মন্ত্রী-বিধায়করা। কেজরিওয়াল অবশ্য দিল্লির সাধারণ মানুষের কাছে আবেদন জানিয়েছেন তাঁরা যেন এই ধর্নায় অংশগ্রহণ না করেন।

মধ্যদিল্লিতে ইতিমধ্যেই ১৪৪ ধারা জারি করেছে দিল্লি পুলিস। চারটি মেট্রো স্টেশন বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।



First Published: Monday, January 20, 2014 - 10:34


comments powered by Disqus