সমালোচকদের `গর্জনকারী কুকুর` বলে ঠুকলেন আসারাম

দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ডে নিগৃহীতার ঘাড়ে `আংশিক দোষ` চাপানোর পর এবার এবার সমালোচকদের `গর্জনকারী কুকুর` বললেন বাপু আসারাম। আজ ভক্তকুলের উদ্দেশে অনুশোচনাহীন আসারাম বলেন, "প্রথমে একটা কুকুর ডাকে। তার পর সব কুকুররা ডাকতে শুরু করে। হাতি যদি কুকুরের পিছনে দৌড়তে শুরু করে তাহলে হাতিরই সম্মান কমে। আমি কেন ওদের পিছনে ছুটব?" তাঁর বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করার জন্য মিডিয়াকেও একহাত নেন তিনি।

Updated: Jan 8, 2013, 06:23 PM IST

দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ডে নিগৃহীতার ঘাড়ে `আংশিক দোষ` চাপানোর পর এবার এবার সমালোচকদের `গর্জনকারী কুকুর` বললেন বাপু আসারাম। আজ ভক্তকুলের উদ্দেশে অনুশোচনাহীন আসারাম বলেন, "প্রথমে একটা কুকুর ডাকে। তার পর সব কুকুররা ডাকতে শুরু করে। হাতি যদি কুকুরের পিছনে দৌড়তে শুরু করে তাহলে হাতিরই সম্মান কমে। আমি কেন ওদের পিছনে ছুটব?" তাঁর বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করার জন্য মিডিয়াকেও একহাত নেন তিনি।
তিনি আরও বলেন এক্ষেত্রে আইন সংশোধন করে কঠিন করা হলে তার অপপ্রয়োগ ঘটবে। তিনি বলেন, "আইনের অপব্যবহারের সবথেকে বড় উদাহরণ পণপ্রথার ক্ষেত্রে দেখা যায়।"
সোমবার দিল্লি গর্ণধর্ষণকাণ্ড নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ান ধর্মগুরু আসারাম বাপু। স্বঘোষিত এই ধর্মগুরুর দাবি করেন, অভিযুক্তদের সঙ্গে সঙ্গে নির্যাতিতা তরুণীও এই ঘটনার জন্য সমান দায়ি। আসারামের মত ছিল, অভিযুক্তদের ভাই সম্বোধন করে যদি তরুণী তাদের কাছে রেহাই ভিক্ষা করা উচিত ছিল। তারঁ মতে সেক্ষেত্রে হয়ত এতবড় বিপর্যয় এড়ানো যেত। দিল্লি গণধর্ষণকাণ্ড নিয়ে গোটা দেশ যখন প্রতিবাদ উত্তাল সেসময় আসারামের এই মন্তব্যে সব মহলই ক্ষুব্ধ।