ভাজা পুলি ও সিদ্ধ পুলি

ভাজা পুলি ও সিদ্ধ পুলি

ভাজা পুলি ও সিদ্ধ পুলিএমনিতে পিঠে পরিবারের লোকজন একটু ক্যালরি কনসাস। তেলের থেকে কিছুটা দূরে দূরে থাকতেই পছন্দ করে তারা। কিন্তু সব পরিবারেই তো একজন দু`জন `নিয়মহারা হিসাবহীন` সদস্যরা থাকেন। ভাজা পুলি অনেকটা সেই ক্যাটগরিতেই পড়ে। চিরাচরিত সিদ্ধ হওয়ার রাস্তা এড়িয়ে এর তেলের সঙ্গে ভাবসাব। তবে তাই বলে তার স্বাদের দেমাক কি কিছু মাত্র কম? মোটেও না। রসনা তৃপ্তিতে সে তার পরিবারের বাকি সবার থেকে কোন অংশেই কম যায় না কিন্তু।

অন্যদিকে তার সহোদরা সিদ্ধ পুলি কিন্তু আবার ভীষণ ট্র্যাডিশনাল। নারকেল পুরকে বুকে করে নিয়ে নিয়মমাফিক সিদ্ধ হতেই সে বেশি পচ্ছন্দ করে। তবে স্বাদের বিচারে মোটেও ভাজা পুলিকে সহজে জায়গা ছেড়ে দেয় না। নিজের মত করে তার স্বাদও একেবারে অনন্য।

ভাজা পুলি

কী কী লাগবে

আতপ চালের গুঁড়ো-৫০০ গ্রাম
খেজুরের গুড়-২ কাপ
নারকেল কোরা- ২ কাপ
নুন-সামান্য
ভাজার জন্য তেল
গোলার জল্য জল

কীভাবে বানাবেন

নারকেল ও গুড় জ্বাল দিয়ে পুর তৈরি করুন। চালের গুঁড়ো সিদ্ধ করে জল দিয়ে ভালো করে মেখে নিন। এবার মাখা থেকে লেচি কেটে গোল করে মাঝখানে পুর ভরে মাঝারি আকারের পুলি পিঠে তৈরি করে নিন। কড়াইতে তেল দিয়ে গরম হলে পিঠে ছেড়ে দিন। পিঠে ভাজা হয়ে বাদামি রঙের হয়ে এলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।
ভাজা পুলি ও সিদ্ধ পুলি
সিদ্ধ পুলি

কী কী লাগবে

আতপ চালের গুঁড়ো-৪ কাপ
খেজুর গুড়-২ কাপ
নারকেল কোরা-২ কাপ

কীভাবে বানাবেন

আতপ চালের গুঁড়ো হালকা ভেজে পরিমাণমতো জল দিয়ে মেখে নিন। কড়াইতে গুড় ও নারকেল একসঙ্গে জ্বাল দিন। মিশ্রণটি শুকিয়ে আঠা আঠা করে নামিয়ে রাখুন। চাল মাখা হাতে নিয়ে গোল গোল লেচি কেটে মাঝখানে পুর দিয়ে পুলি তৈরি করুন। এভাবে সব পুলি পিঠে বানিয়ে ভাপে সিদ্ধ করে গরম গরম পরিবেশন করুন।




First Published: Sunday, January 13, 2013, 16:32


comments powered by Disqus