ঝাড়খণ্ডে সঙ্কটে বিজেপি

গভীর সঙ্কটে পড়ে গেল ঝাড়খণ্ডের বিজেপি নেতৃত্বাধীন অর্জুন মুন্ডার সরকার। জোট সরকার থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিল শরিক ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা। কাল রাজ্যপালের কাছে সমর্থন প্রত্যাহারের চিঠি দেবে শিবু সোরেনের দল। বিরাশি আসনের ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার বিধায়ক সংখ্যা ১৮। বিজেপিরও বিধায়ক আঠারো জন। বিজেপির পক্ষে সমর্থন রয়েছে অল ঝাড়খণ্ড স্টুডেন্টস ইউনিয়নের ছয় বিধায়কের। সংযুক্ত জনতা দলের দুই বিধায়কও রয়েছে বিজেপির সঙ্গে। কিন্তু ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় অর্জুন মুন্ডার সরকার বিধানসভায় গরিষ্ঠতা হারাল।

Updated: Jan 7, 2013, 10:04 PM IST

গভীর সঙ্কটে পড়ে গেল ঝাড়খণ্ডের বিজেপি নেতৃত্বাধীন অর্জুন মুন্ডার সরকার। জোট সরকার থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিল শরিক ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা। আজ রাজ্যপালের কাছে সমর্থন প্রত্যাহারের চিঠি দেবে শিবু সোরেনের দল।
মুখ্যমন্ত্রীত্বের দাবিতে বিজেপি সরকারের ওপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা। বিরাশি আসনের ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার বিধায়ক সংখ্যা ১৮। বিজেপিরও বিধায়কও ১৮ জন। বিজেপির পক্ষে সমর্থন রয়েছে অল ঝাড়খণ্ড স্টুডেন্টস ইউনিয়নের ৬ বিধায়কের। সংযুক্ত জনতা দলের দুই বিধায়কও রয়েছে বিজেপির সঙ্গে।
কিন্তু ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় অর্জুন মুন্ডার সরকার বিধানসভায় গরিষ্ঠতা হারাল। সরকার গঠনের ২৮ মাসের মাথায় মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবি করে মুক্তি মোর্চা। তাদের দাবি, এই শর্তেই তারা বিজেপিকে সরকার গঠনে সমর্থন দিয়েছিল। সোমবার শিবু সোরেনের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করেও সমস্যার জট খুলতে পারেননি অর্জুন মুন্ডা। মঙ্গলবারই রাজ্যপালের কাছে সমর্থন প্রত্যাহারের চিঠি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিবু সোরেন।
ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার তরফে অবশ্য জানানো হয়েছে, সরকার গঠন নিয়ে কংগ্রেসের সঙ্গে তাদের কোনও আলোচনা হয়নি। কংগ্রেসও গোটা পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে।