ইস্তফা দিচ্ছেন না গড়করি, পাশেই দল

দলের সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার প্রশ্নই নেই নিতিন গড়করির। শুক্রবার রাতে কোর কমিটির বৈঠকের পর একথা জানিয়ে দিলেন বিজেপি মুখপাত্র প্রকাশ জাভরেকর। একই সঙ্গে তিনি বলেন, দুর্নীতি নিয়ে যেকোনওরকম তদন্তের জন্য তৈরি নিতিন গড়করি।

Updated: Oct 27, 2012, 09:13 AM IST

দলের সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার প্রশ্নই নেই নিতিন গড়করির। শুক্রবার রাতে কোর কমিটির বৈঠকের পর একথা জানিয়ে দিলেন বিজেপি মুখপাত্র প্রকাশ জাভরেকর। একই সঙ্গে তিনি বলেন, দুর্নীতি নিয়ে যেকোনওরকম তদন্তের জন্য তৈরি নিতিন গড়করি।
বেনামে এবং ভুয়ো ঠিকানায় একাধিক সংস্থার নামে বিনিয়োগ আর ঋণ নেওয়ার মতো গুরুতর অভিযোগ রয়েছে বিজেপি সভাপতির বিরুদ্ধে। তার তদন্তও শুরু করেছে কোম্পানি বিষয়ক মন্ত্রক এবং আয়কর দফতর। মহারাষ্ট্রের পাশাপাশি খোদ দিল্লিতেও এই ভুয়ো কারবারের জাল বিস্তৃত বলে জানতে পেরেছে কোম্পানি বিষয়ক মন্ত্রক। এই পরিস্থিতিতে স্বভাবতই অস্বস্তি বেড়েছে দুর্নীতি ইস্যুতে সবথেকে বেশি সরব বিজেপির। প্রশ্ন ছিল তাহলে কি দুর্নীতির দায়ে দলের সভাপতি পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হবে নিতিন গড়করিকে? প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে শুক্রবার রাতেই দিল্লিতে তলব করা হয় তাঁকে। লালকৃষ্ণ আডবাণী, সুষমা স্বরাজ, অরুণ জেটলিদের উপস্থিতিতে কোর কমিটির সামনে হাজির হন গড়করি। আর বৈঠক শেষে বিজেপি নেতৃত্ব স্পষ্টই জানালো, গড়করির পাশেই রয়েছে দল।
গড়করির পাসেই দলের অবস্থান কে ঘিরে স্বভাবতই বিবিধ প্রশ্ন তৈরি হচ্ছে। দুর্নীতি প্রশ্নে এবার আপসের পথে বিজেপিও হাঁটতে শুরু করল কিনা তা নিয়েও জোর জল্পনা চলছে। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, যেকোনওরকম তদন্তে রাজি হওয়াতেই রয়েছে সময় কেনার কৌশল। তবে, আশ্চর্যজনকভাবে গোটা ইস্যু থেকে নিজেদের সরিয়ে রেখেছে আরএসএস। আরএসএস ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত গড়করিকে নিয়ে সঙ্ঘের এই নীরবতা যথেষ্ট তাতপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।