ইউপিএর বর্ষপুর্তিতে বিজেপির `উপহার` সমালোচনা

Last Updated: Wednesday, May 22, 2013 - 16:08

দ্বিতীয় ইউপিএর চতুর্থ বর্ষপুর্তিতে মনমোহন সরকারের সমালোচনার সুর সপ্তমে তুলল ভারতীয় জনতা পার্টি। ইউপিএর নেতৃত্বে ভাঙন ধরেছে বলে মন্তব্য করলেন লোকসভার বিরোধী দলনেত্রী সুষমা স্বরাজ। প্রধনামন্ত্রীর নাম করে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন সুষমা, "মনোমোহন সিং প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন, কিন্তু তিনি দেশের নেতা নন।" তিনি আরও বলেন, "সমস্যার সময় শরিকরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেন ঠিকই, কিন্তু তাঁদের সোনিয়া গান্ধীর মুখাপেক্ষি থাকতে হয়।"
বিজেপির ব্যাখ্যা, "জোট চালাতে গেলে বিশেষ নেতৃত্বের প্রয়োজন"। কিন্তু ইউপিএ দেশকে সেই নেতৃত্ব দিতে ব্যর্থ বলে মত বিজেপির। সরকারের একাধিক সিদ্ধান্ত মানুষ মেনে নেয়নি বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাজ। তিনি বলেন, "সরকারকে দায়ী করে সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেওয়া রীতি হয়ে দাঁড়িয়েছে কংগ্রেসের।"
ভারতীয় অর্থনীতিতে যে স্বচ্ছলতা এসেছে তা এনডিএর হাত ধরে বলে মনে করছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব। সুষমার কথায়, "ভারতীয় অর্থনৈতিক পরিবেশ উদ্বেগজনক। ফলে সাধারণ মানুষ বিনয়োগ করতে ভয় পাচ্ছে।"
সুষমার বয়ানে ছিল দুর্নীতির প্রসঙ্গও। ইউপিএ জমানায় দুর্নীতি লাগাম ছাড়া হয়ে উঠেছে বলে মত সুষমার। মূল্যবৃদ্ধির জেরে সাধারণ মানুষকে ভুগতে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিরোধী দলনেত্রী। তিনি বলেন, "এর আগে কোনও সরকারের জমানায় মুদ্রাস্ফীতির হার এত বাড়েনি।" তাঁর মতে বৈদেশিক সম্পর্ক বজায় রাখতেও ব্যার্থ। ফলে মালদ্বীপের মতো ছোট দেশও ভারতের সঙ্গে পাঙ্গা লড়তে সাহস পায় বলে যুক্তি দিয়েছেন তিনি।
একই সুর রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা অরুণ জেটলির গলায়। এত খারাপ ও আশাহত সময় দেশের কখনও আসেনি বলে মত জেটলির। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ছোট রাজনৈতিক দলগুলির জোটবদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা কতটা প্রবল? সে বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে জেটলি বলেন, "তৃতীয় জোটের কোনও অস্তিত্ব নেই। এটা একটা ব্যর্থ ভাবনা।"



First Published: Wednesday, May 22, 2013 - 16:08


comments powered by Disqus