জোট ছেড়ে ভোটের লড়াইয়ে করুণা, আম্মা

জোট ছেড়ে ভোটের লড়াইয়ে করুণা, আম্মা

জোট ছেড়ে ভোটের লড়াইয়ে করুণা, আম্মা
দু`মাস আগেকার বিধানসভা ভোটের জোট-সমীকরণ ভেঙে ছারখার! আসন্ন পঞ্চায়েত এবং পুরসভা নির্বাচন ঘিরে তামিল মুলুকের যুযুধান রাজনৈতিক শিবিরগুলিতে এখন শুধুই `একলা চলো` স্লোগান। সাত বছরের জোটসঙ্গী কংগ্রেসকে ত্যাগ করে একক শক্তিতে স্থানীয় নির্বাচনে লড়ার কথা জানিয়েছেন ডিএমকে সুপ্রিমো মুথুভেল করুণানিধি। অন্য দিকে মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে একতরফা ভাবে স্থানীয় স্বায়ত্ব সংস্থাগুলির ভোটে দলীয় প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছেন ডিএমডিকে সভাপতি বিজয়কান্ত।
ডিএমকে`র ক্ষেত্রে কারণটা অনেকটাই জাতীয় রাজনীতি-কেন্দ্রীক। টু-জি স্পেকট্রাম কেলেঙ্কারির জেরে নিজের ঘনিষ্ঠ সহযোগী এ রাজা এবং আদরের ছোট মেয়ে কানিমোঝির গ্রেফতারির ঘটনায় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ করুণানিধি। পঞ্চায়েত ও পুরভোটে তাই সনিয়ার দলকে সবক শেখাতে চান তিনি। অগস্টে ডিএমকে`র কার্যনির্বাহী পরিষদের
বৈঠকে জাতীয় পর্যায়ে ইউপিএ জোটের শরিক থেকে স্থানীয় স্তরে একক ভাবে চলার বিষয়ে ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে। শুধু কংগ্রেস নয়, এস রামাডসের পিএমকে এবং
থল তিরুমালব্যনের নেতৃত্বাধীন জাতপাত ভিত্তিক দ্রাবিড় দলগুলির সঙ্গেও স্থানীয় ভোটে গাঁটছড়া ছিন্ন করার দাবী উঠেছে ডিএমকে নেতৃত্বের একটা বড় অংশের তরফে।
অন্য দিকে এডিএমকে-ডিএমডিকে সংঘাতের মূলে রয়েছে, স্থানীয় রাজনীতির বাধ্যবাধকতা এবং ব্যক্তিত্বের সংঘাত। এপ্রিলের বিধানসভা ভোটে তামিল সুপারস্টার বিজয়কান্তের দল ডিএমডিকে এবং দুই বাম দলের সঙ্গে জোট বেঁধে চমকে দিয়েছিলেন জয়ললিতা। ডিএমকে-কংগ্রেস-পিএমকে জোটকে পর্যুদস্ত করে রাজ্য বিধানসভার ২৩৪টির মধ্যে ১৫০টি আসনেই জেতে তাঁর দল এডিএমকে। জোটসঙ্গী ডিএমডিকে, সিপিএম এবং সিপিআই পায় যথাক্রমে ২৯, ১০ এবং ৯টি আসন। কিন্তু জোটের জোরে প্রত্যাশা ছাপানো জয়ের পরই শরিকদের প্রতি অবজ্ঞার অভিযোগ উঠতে শুরু করে আম্মার বিরুদ্ধে। বিজয়কান্তকে কার্যত ব্রাত্য রেখে একক ভাবে সরকার গঠন করেন তিনি। আগামী ১৭ এবং ১৯ অক্টোবর রাজ্যের ১৩,০০০ পুরসভা এবং পঞ্চায়েতের ভোটে এই `অপমানের` প্রতিশোধ নিতে বদ্ধপরিকর বিজয়কান্ত।
বিধানসভায় বিরোধী আসনে বসার পাশাপিশি আম্মার ঔদ্ধত্যের জবাব দিতে একার শক্তিতে স্থানীয় স্বায়ত্বশাসন সংস্থাগুলির নির্বাচনে লড়ার কথা ঘোষণা করেছেন তিনি। ইতিমধ্যেই অধিকাংশ আসনে দলীয় প্রার্থীদের নামও প্রকাশ করে দিয়েছেন।
সব মিলিয়ে তাই বহুমুখী রাজনৈতিক লড়াইয়ে জমজমাট তামিলনাড়ুর স্থানীয় স্বায়ত্বশাসন সংস্থাগুলির ভোট।



First Published: Wednesday, October 05, 2011, 17:56


comments powered by Disqus