নীতীশকে ১২হাজার কোটি টাকার সাহায্য কেন্দ্রের

লোকসভা নির্বাচনের তোরজোড় শুরু হতেই বিহারকে বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। বৃহস্পতিবার আর্থিক বিষয়ক কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আগামী চার বছর ৩ হাজার কোটি টাকা করে সাহায্য পাবে নীতীশ কুমারের বিহার। পিছিয়ে পড়া রাজ্যের উন্নয়নের যোজনায় এই বিশেষ অর্থ সাহায্য মঞ্জুর করল কেন্দ্র।

Updated: Apr 18, 2013, 08:56 PM IST

লোকসভা নির্বাচনের তোরজোড় শুরু হতেই বিহারকে বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। বৃহস্পতিবার আর্থিক বিষয়ক কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আগামী চার বছর ৩ হাজার কোটি টাকা করে সাহায্য পাবে নীতীশ কুমারের বিহার। পিছিয়ে পড়া রাজ্যের উন্নয়নের যোজনায় এই বিশেষ অর্থ সাহায্য মঞ্জুর করল কেন্দ্র।
নির্বাচন সামনে থাকায় এখন জোটের দিকেই নজর দিচ্ছে কংগ্রেস। বিশেষজ্ঞ মহলের ব্যখ্যা, জোটের কথা মাথায় রেখেই নীতীশ কুমারকে খুশি করার চেষ্টা করা হয়েছে। একদিকে জনতা দলের ২০ জন সাংসদকে নিজেদের কোর্টে রাখা, আবার এনডিএতে ভাঙন ধরানোর খাতিরেও বিহারকে আর্থিক সাহায্য দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
গত সপ্তাহে বিহার মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার মোদীকে কটাক্ষ করেন। বিজেপির কাছে মোদী যোগ্য প্রধানমন্ত্রী পার্থী নন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। ফলে দুই হেভিওয়েট নেতার মধ্যে বাক্যবাণ ক্রমশ জোড়াল হতে থাকে। জেডি(ইউ)-এর মতে ২০০২ সালের পর মোদীর ধর্ম নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এবং বিজেপির প্রধানমন্ত্রী মোদী হলে জেডি(ইউ) যে সঙ্গ ত্যাগ করবে তাও ঠাউরে দেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব।
কেন্দ্রে তৃণমূল-কংগ্রেসের জোট সরকারের মধ্যে এই আর্থিক সাহায্যের ইস্যুতেই ফাটল ক্রমশ চওড়া হয়েছে। শরিক হওয়া সত্ত্বেও মমতা বন্দ্যোপধ্যায়ের আর্থিক সাহায্যের দাবি মেনে নেয়নি দশ জনপথ। সেক্ষেত্রে বিরোধী শরিক নীতীশ কুমারের দাবিতে সায় দেওয়ার মধ্যে অন্য রাজনৈতিক সমীকরণ খোঁজার চেষ্টা করছে রাজনৈতিক মহল।