কোথায় গেল ৭০০ কোটি টাকা? রাজ্যের হিসেব মিলল না ক্যাগ রিপোর্টে

অর্থ কমিশনের টাকা কীভাবে খরচ করা হল, তার সম্পূর্ণ হিসেব জানাতে পারেনি রাজ্য সরকার। ক্যাগ রিপোর্টে বেরিয়ে এসেছে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য। গতকাল বিধানসভায় দুহাজার এগারো থেকে তেরো, এই দুটি আর্থিক বছরের ক্যাগ রিপোর্ট পেশ করেছে রাজ্য। অর্থ কমিশনের প্রায় সাতশো কোটি টাকা কোথায় খরচ করা হল?

Updated: Jul 11, 2014, 11:49 PM IST

অর্থ কমিশনের টাকা কীভাবে খরচ করা হল, তার সম্পূর্ণ হিসেব জানাতে পারেনি রাজ্য সরকার। ক্যাগ রিপোর্টে বেরিয়ে এসেছে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য। গতকাল বিধানসভায় দুহাজার এগারো থেকে তেরো, এই দুটি আর্থিক বছরের ক্যাগ রিপোর্ট পেশ করেছে রাজ্য। অর্থ কমিশনের প্রায় সাতশো কোটি টাকা কোথায় খরচ করা হল?

এখন এ প্রশ্নটাই ঘুরপাক খাচ্ছে রাজ্য প্রশাসনের অন্দরে। বৃহস্পতিবার বিধানসভার অধিবেশনের শেষ দিনে দুটি আর্থিক বছরের কম্পট্রলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেলের রিপোর্ট পেশ হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে,

২০১২-১৩ আর্থিক বছরে রাজ্যের বিভিন্ন দফতরকে পনের হাজার তিপান্ন কোটি এবং আঠারো হাজার টাকা দেয় অর্থ কমিশন।

বছর শেষে আটশো ছিয়াত্তর কোটি ছেচল্লিস হাজার টাকার হিসেব দেওয়া হয়।

কিন্তু গত বছরের জুলাই পর্যন্ত ছশো ছিয়াত্তর কোটি বাহাত্তর হাজার টাকা খরচের হিসেব দিতে পারেনি রাজ্য সরকার।

শুধু তাই নয়, পরিকল্পনা করে যে টাকা খরচ করা হচ্ছে না, তার ইঙ্গিতও মিলেছে ক্যাগের রিপোর্টে,

২০১২-১৩ আর্থিক বছরে মোট খরচ হয় চুয়াল্লিস হাজার সাতশো চল্লিস কোটি সাঁইত্রিশ হাজার টাকা।

এর মধ্যে শুধুমাত্র মার্চ মাসে ন হাজার ছশো আটষট্টি কোটি পনের হাজার টাকা খরচ হয়।

গোটা মার্চ মাসে সব চেয়ে বেশি খরচ হয় শেষ কর্মদিবসে। সেদিন খরচ করা হয় দুহাজার ছশো চুরাশি কোটি পঁয়ত্রিশ হাজার টাকা।

ক্যাগ জানাচ্ছে,

২০১২-১৩ আর্থিক বছরে রাজ্যের সাতচল্লিসটি স্বশাসিত সংস্থার একটিও হিসেব দেয়নি।
২০১১-১২ পর্যন্ত হিসেব দিয়েছে মাত্র সতেরটি সংস্থা।

উন্নয়নের জন্য টাকা নেই। একাধিক সভায় মুখ্যমন্ত্রী এ কথা বললেও ক্যাগ রিপোর্ট কিন্তু বলছে অন্য কথা। ক্যাগের রিপোর্ট অনুযায়ী,

২০১১-১২ আর্থিক বছরে আঠারোটি জেলা পরিষদ অনুদান পায় চার হাজার একশো চৌত্রিশ কোটি বাহান্ন হাজার টাকা। কিন্তু দুহাজার বারো-তেরোর শেষ পর্যন্ত খরচ হয়নি বাইশ শতাংশ টাকাই।

ক্যাগের মতে এর জেরে ব্যাহত হচ্ছে, গ্রামীণ উন্নয়ন।

শুধু হিসেব-খরচ নয়, বিভিন্ন সরকারি দফতরের বিষয় নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছে ক্যাগ রিপোর্ট।

Tags: