সীমান্তে উত্তেজনা নিয়েই চিন সফর বহাল খুরশিদের

গত কয়েকদিন ধরে লাদাখে চিন এবং ভারতের মধ্যের লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল বা এলএসিতে চাপা উত্তেজনা ঊর্ধ্বগামী। বেশ কয়েকদিন ধরে এলএসি টপকে ভারতের অংশে ঘাঁটি গেড়েছে চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি। এমনকী লাদাখের আকাশে চক্কর দিতে দেখা গেছে পিএলএ-র হেলিকপ্টারকে। চিনা ঘাঁটির উলটো দিকে সেনা মজুত করা হয়েছে ভারতীয় সেনা বাহিনীর পক্ষ থেকেও। চিনের সঙ্গে ভারতের দুটি ফ্ল্যাগ মিটিং ব্যর্থ হয়েছে। এই রকম রাজনৈতিক উত্তেজনার মধ্যে আগামী মাসের ৯ তারিখ বেজিং যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় বিদেশ মন্ত্রী সলমন খুরশিদ।

Updated: Apr 25, 2013, 12:23 PM IST

গত কয়েকদিন ধরে লাদাখে চিন এবং ভারতের মধ্যের লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল বা এলএসিতে চাপা উত্তেজনা ঊর্ধ্বগামী। বেশ কয়েকদিন ধরে এলএসি টপকে ভারতের অংশে ঘাঁটি গেড়েছে চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি। এমনকী লাদাখের আকাশে চক্কর দিতে দেখা গেছে পিএলএ-র হেলিকপ্টারকে। চিনা ঘাঁটির উলটো দিকে সেনা মজুত করা হয়েছে ভারতীয় সেনা বাহিনীর পক্ষ থেকেও। চিনের সঙ্গে ভারতের দুটি ফ্ল্যাগ মিটিং ব্যর্থ হয়েছে। এই রকম রাজনৈতিক উত্তেজনার মধ্যে আগামী মাসের ৯ তারিখ বেজিং যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় বিদেশ মন্ত্রী সলমন খুরশিদ।
যদিও ভারতীয় সেনা জোড়ালো দাবি করা সত্ত্বেও লাদাখে অনুপ্রবেশের কথা অস্বীকার করেছে চিন। এই রকম পরিস্থিতিতে সলমন খুরশিদের চিন সফর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে কূটনৈতিক মহল। ভারতের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার যাবতীয় চেষ্টা করা হচ্ছে। এই সপ্তাহেই ভারতের পক্ষ থেকে চিনের সঙ্গে তৃতীয় ফ্ল্যাগ মিটিংয়ের চেষ্টা করা হচ্ছে। যদিও এখনও দিন স্থির হয়নি।
চলতি সপ্তাহেরই প্রথম দিকে ভারত-চিনের দ্বিতীয় ফ্ল্যাগ মিটিংয়ে চিন ভারতকে পূর্ব লাদাখে সীমান্ত বরাবর ভারতীয় সেনার কিছু ঘাঁটি সরিয়ে নিতে বলে। স্বাভাবিকভাবেই এরপর ফ্ল্যাগ মিটিং ব্যর্থ হয়।