চপার বিতর্কে সাহায্যের আশ্বাস ক্যামেরনের

ভিআইপি হেলিকপ্টার কেনাবেচা নিয়ে বিতর্কে ভারতকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন। মনমোহন সিংয়ের সঙ্গে বৈঠকের পর যৌথ বিবৃতিতে একথা জানান তিনি। ঘুষ রুখতে ব্রিটেনে কড়া আইন রয়েছে বলেও এদিন আশ্বাস দেন ক্যামেরন। এদিনের বৈঠকে প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত চুক্তি সহ একাধিক দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় দুই রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে।

Updated: Feb 19, 2013, 03:58 PM IST

ভিভিআইপি হেলিকপ্টার কেনাবেচার দুর্নীতি তদন্তে ভারতকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন। মনমোহন সিংয়ের সঙ্গে বৈঠকের পর যৌথ বিবৃতিতে একথা জানালেন দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধান। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জানান,দুর্নীতি রুখতে ব্রিটেনে কড়া আইন থাকায় এক্ষেত্রে অপরাধী রেহাই পাবে না।
অগস্টা ওয়েস্টল্যান্ড সংস্থার সঙ্গে হেলিকপ্টার কেনার চুক্তি নিয়ে বিপাকে কেন্দ্র। সিবিআই তদন্তের সঙ্গেই সরকার এবারে ওই চুক্তি বাতিল করার উদ্যোগ নিয়েছে। এবারে সেই দুর্নীতি বিতর্ক উঠল মনমোহন সিং ও ডেভিড ক্যামেরনের আলোচনায়। যৌথ বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং জানালেন, তদন্তে সব রকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন ক্যামেরন।
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন জানান, ঘুষ রুখতে ব্রিটেনে কড়া আইন রয়েছে। ফলে অপরাধীর শাস্তি নিশ্চিত ।
প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত চুক্তি সহ একাধিক বিষয় নিয়েও মঙ্গলবার আলোচনা হয় দুই রাষ্ট্রপ্রধানের । সন্ত্রাস দমনে পারস্পরিক সহযোগিতার প্রশ্নে উঠে আসে ২৬/১১-র জঙ্গি হানার প্রসঙ্গও।
আজ সকালেই দিল্লি পৌঁছন ক্যামেরন। আগামিকাল অমৃতসরে যাওয়ার কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। অমৃতসরে পৌঁছে জালিয়ানওয়ালাবাগে যেতে পারেন ক্যামেরন। যেতে পারেন স্বর্ণমন্দিরেও। ইতিমধ্যেই জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ড নিয়ে ক্যামেরনের ক্ষমা চাওয়ার দাবি তুলেছে জালিয়ানওয়ালাবাগ শহীদ পরিবার সমিতি। এদিকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সফর ঘিরে অমৃতসরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।
তিনদিনের ভারত সফরে গতকালই মুম্বই পৌঁছন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।