শ্রমিক সুরক্ষার দাবিতে বিক্ষোভ সিটুর

সরকারি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত অস্থায়ী কর্মীদের ন্যূনতম মজুরি, সামাজিক সুরক্ষার দাবিতে দিল্লির যন্তর-মন্তরে দুদিনের অবস্থান বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে সিটু। গতকাল, বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিআইএম সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ কারাত। ঠিকা কর্মী নিয়োগ, খুচরো ব্যবসায়ে বিদেশি বিনিয়োগের মতো বিভিন্ন ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের কড়া সমালোচনা করেন তিনি।

Updated: Nov 27, 2012, 10:20 AM IST

সরকারি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত অস্থায়ী কর্মীদের ন্যূনতম মজুরি, সামাজিক সুরক্ষার দাবিতে দিল্লির যন্তর-মন্তরে দুদিনের অবস্থান বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে সিটু। গতকাল, বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিআইএম সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ কারাত। ঠিকা কর্মী নিয়োগ, খুচরো ব্যবসায়ে বিদেশি বিনিয়োগের মতো বিভিন্ন ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের কড়া সমালোচনা করেন তিনি।
অঙ্গনওয়াড়ি, মিড ডে মিলের মতো নানা সরকারি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত কর্মীরা সোমবার যন্তর-মন্তরে অবস্থান-বিক্ষোভে সামিল হন। সিটুর ডাকে এই বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নেন বিভিন্ন রাজ্যের প্রায় ৫০ হাজার মহিলা কর্মী। সমাবেশে সিপিআইএম সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ কারাত অভিযোগ করেন, সরকারি প্রকল্পের কর্মীদের স্বেচ্ছাসেবী, সহায়িকা নামে ডাকা হচ্ছে। ফলে, শ্রমিক-কর্মচারির অধিকার থেকে তাঁরা বঞ্চিত হচ্ছেন। মজুরির পরিবর্তে মিলছে নামমাত্র ভাতা।
অস্থায়ী শ্রমিক-কর্মচারিদের দিকে না তাকিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার বৃহত্‍ বাণিজ্যিক সংস্থাগুলির স্বার্থ রক্ষা করছে বলেও অভিযোগ করেন প্রকাশ কারাত। খুচরো ব্যবসায়ে বিদেশি লগ্নিরও বিরোধিতা করেন সিপিআইএম সাধারণ সম্পাদক।
সরকারি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত অস্থায়ী কর্মীদের ন্যূনতম ১০ হাজার টাকা মজুরি, পেনশন সহ অন্যান্য সামাজিক সুরক্ষার দাবি তোলা হয়েছে এই সমাবেশে। বিষয়টি নিয়ে সংসদের ভিতরে-বাইরে আগামিদিনে আরও বেশি করে সরব হওয়ার কথা জানিয়েছে বামেরা।