কোলগেট কেলেঙ্কারি: ৫ সংস্থার বিরুদ্ধে সিবিআইএর এফআইআর

Last Updated: Tuesday, September 4, 2012 - 10:40

কয়লা ব্লক বন্টনের বরাত পাওয়া পাঁচটি  সংস্থার বিরুদ্ধে মঙ্গলবার এফআইআর দায়ের করল সিবিআই। এই সংস্থাগুলি হল, ভিনি আয়রন, নব ভারত পাওয়ার, জেএনডি জগতমল, এমআর এবং জাস ইনফ্রাসট্রাকচার। এ ছাড়া আরও পাঁচটি সংস্থা সিবিআই-এর নজরদারিতে রয়েছে। সংস্থাগুলির বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এনেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। মোট  ১০টি শহরে ৩০টি স্থানে তল্লাসি চলছে। এর মধ্যে রয়েছে কলকাতা, দিল্লি, ধানবাদ, পাটনা, হায়দরাবাদের বেশ কিছু সংস্থা। এফআইআর-এ কয়লা মন্ত্রকের বেশ কিছু ক্ষমতাশালী আধিকারিকেরও নাম আছে বলে সূত্রে খবর। কয়লা বণ্টনে অনিয়মের ক্ষেত্রে তাঁদের বড় ভূমিকা আছে বলে মনে করছে সিবিআই।
কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর গেনেরাল বা ক্যাগ-এর রিপোর্টের ভিত্তিতেই সিবিআই তদন্ত শুরু করল। এর আগে ক্যাগের রিপোর্টে জানা গিয়েছে যে কয়লা বণ্টনে অনিয়মের জেরে দেশের ১.৮৫ লক্ষ কোটি টাকা (৩৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) লোকসান হয়েছে।
এদিকে, সিবিআই তদন্ত শুরুর প্রথম ধাপের এফআইআর লোকসভায় বিজেপির পালে হাওয়া আনবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কয়লা ব্লক বণ্টন নিয়ে গতকালই, রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা অরুণ জেটলি বলেন, সংসদ চলার জন্য তাঁরা বণ্টিত কয়লার ব্লকগুলি বাতিল করা এবং এ বিষয়ে বিচারবিভাগীয় তদন্তের শর্ত দিয়েছেন। তার মানে এই নয় যে, তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর ইস্তফার দাবি থেকে সরে এসেছেন। যদিও, বিজেপি-র এই দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম।
অন্যদিকে, কয়লা ব্লক বণ্টনের বেনিয়ম নিয়ে সরব বামেরাও। রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা নয়, বেসরকারি সংস্থাকে দেওয়া কয়লার ব্লক ফিরিয়ে নিতে হবে। গতকাল কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে এই দাবি জানান সিপিআইএম পলিটব্যুরো সদস্য সীতারাম ইয়েচুরি। রিলায়েন্সের মতো সংস্থা বিদ্যুত উত্‍পাদনের জন্য কয়লার ব্লক পেয়ে সেই কয়লা অন্য কাজে লাগাচ্ছে। অথচ, প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে নিশ্চুপ রয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন সিপিআইএম সাংসদ বাসুদেব আচারিয়া।



First Published: Tuesday, September 4, 2012 - 11:02
comments powered by Disqus