কর্ণাটক হাতছাড়া হচ্ছে বিজেপির, বলছে বুথ ফেরত সমীক্ষা

Last Updated: Monday, May 6, 2013 - 10:06

বিজেপির হাতছাড়া হতে চলেছে কর্ণাটক। দু-দশক পর ফের দক্ষিণের এই রাজ্য আসতে চলেছে কংগ্রেসের হাতে। রবিবার কর্ণাটকে ভোটের পর বিভিন্ন বুথ ফেরত সমীক্ষা থেকে এই ছবিই উঠে আসছে। একদিকে কোটি কোটি টাকার খনি-দুর্নীতি বিতর্ক, অন্যদিকে দলে গোষ্ঠীকোন্দলের জেরে পাঁচ বছরে তিন বার মুখ্যমন্ত্রী বদলের ফল বিজেপিকে ভুগতে হবেই বলে মত রাজনৈতিক মহলের।কেন্দ্রে একাধিক দুর্নীতি-কেলেঙ্কারির দায়ে জর্জরিত কংগ্রেসের জন্য সুখবর আনল কর্ণাটকে ভোট পরবর্তী সমীক্ষা।
সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়েই বিজেপিকে সরিয়ে এখানে কংগ্রেস ক্ষমতা দখল করতে চলেছে বলে বিভিন্ন বুথ ফেরত সমীক্ষা রিপোর্টে খবর।
দুশো চব্বিশ আসনের কর্ণাটক বিধানসভার দুশো তেইশটি আসনে ভোটগ্রহণ হয় রবিবার। বিজেপি প্রার্থীর মৃত্যুর কারণ মাইসোরের একটি আসনে ভোট পিছিয়ে দেওয়া হয়।
প্রায় সবকটি বুথ ফের সমীক্ষাতেই কংগ্রেসকে একক বৃহত্তম দল হিসেবে জয়ী দেখানো হয়েছে।
গত নির্বাচনে ১১০ আসনে জয়ী বিজেপির হাতে এবার ৫০-এর বেশি আসন কোনওমতেই আসছে না বলে সমীক্ষা রিপোর্টে প্রকাশ।
অন্যদিকে, পালাবদল ঘটিয়ে কংগ্রেসের ১১০ থেকে ১১৬টি আসন পাওয়ার সম্ভাবনা উজ্জ্বল বলে একাধিক সমীক্ষা রিপোর্টে উঠে এসেছে।
এমনকি একটি সমীক্ষায় একশো বত্রিশটি পর্যন্ত আসনও দেওয়া হয়েছে কংগ্রেসকে।
প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবগৌড়ার দল জেডিএস ৪৩ থেকে ৫৩ আসনে জয়ী হতে পারে বলে উল্লেখ রয়েছে বুথ ফেরত সমীক্ষা রিপোর্টে।
দশটির বেশি আসন পেতে পারে বিজেপি থেকে বহিষ্কৃত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদ্দুরাপ্পার দল কর্ণাটক জনতা পক্ষ।
বিজেপির বিপর্যয়ের পিছনে মূলত দুর্নীতি ও গোষ্ঠীকোন্দল, এই দুটি কারণই দায়ী হতে চলেছে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।
এছাড়াও দক্ষিণ কর্ণাটক এবং বেঙ্গালুরুর বাইরে গ্রামাঞ্চলে ভোক্কালিগা ভোটব্যাঙ্কে এইচডি দেবেগৌড়ার জনতাদল সেকুলার পার্টির একাধিপত্য, উত্তর কর্ণাটকে ইয়েদ্দুরাপ্পার কেজেপি এবং বিজেপির মধ্যে ভোট ভাগাভাগি-- এসবের ফলে আখেড়ে কংগ্রেসেরই লাভ হবে বলে আগাম সমীক্ষায় প্রকাশ।
কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্ত গোলমালের খবর পাওয়া গেলেও, রবিবারের নির্বাচন শান্তিতে এবং সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে দাবি নির্বাচন কমিশনের।
মোট ২০০৯ জন প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারিত হতে চলেছে এই নির্বাচনে। এদের মধ্যে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী জগদীশ শেট্টার, বিধানসভায় বিরোধী দলনেতা সিদ্দারামাইয়া, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদ্দুরাপ্পা, জেডিএস রাজ্য সভাপতি এইচ ডি কুমারস্বামী সহ বহু আলোচিত নাম। আটই মে নির্বাচনের ফলপ্রকাশ।



First Published: Monday, May 6, 2013 - 10:06


comments powered by Disqus