উত্তরাখণ্ডে নির্দলদের সমর্থনে সরকার গড়ছে কংগ্রেস

হোলির রেশ শেষ হওয়ার আগেই উত্তরাখণ্ডে সরকার গড়ার তত্‍পরতা শুরু হল পুরোদমে। আর সংখ্যা অর্জনের এই যুদ্ধের প্রথম রাউন্ডেই প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি`কে টেক্কা দিল কংগ্রেস।

Updated: Mar 9, 2012, 05:02 PM IST

হোলির রেশ শেষ হওয়ার আগেই উত্তরাখণ্ডে সরকার গড়ার তত্‍পরতা শুরু হল পুরোদমে। আর সংখ্যা অর্জনের এই যুদ্ধের প্রথম রাউন্ডেই প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি`কে টেক্কা দিল কংগ্রেস। এদিন দুপুরে দেরাদুনের রাজভবনে রাজ্যপাল মার্গারেট আলভার সঙ্গে দেখা করে আনুষ্ঠানিক ভাবে সরকার গড়ার দাবি জানাল প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি যশপাল আর্য`র নেতৃত্বাধীন দলীয় প্রতিনিধিদল। বিদায়ী বিধানসভার বিরোধী দলনেতা হরক সিং রাওয়াত এবং তেহরির কংগ্রেস সাংসদ বিজয় বহুগুণা ছিলেন এই প্রতিনিধিদলে ছিলেন,সদ্য নির্বাচিত ৩ নির্দল বিধায়ক-হরিশ দুর্গাপাল (লালকুঁয়া), দিনেশ ধানাই (তেহরি), মন্ত্রীপ্রসাদ নৈথানি (দেবপ্রয়াগ) এবং উত্তরাখণ্ড ক্রান্তি দলের একমাত্র বিধায়ত প্রীতম সিং পানওয়ার(যমুনোত্রী)।
৭০ আসনের উত্তরাখণ্ড বিধানসভায় কংগ্রেস ৩২, বিজেপি ৩১ ও বহুজন সমাজ পার্টি ৩টি আসনে জিতেছে। এদিন ৩ নির্দল এবং ইউকেডি`র সবেধন নীলমনি বিধায়কের সমর্থন মেলায় সরকার গড়ার জন্য প্রয়োজনীয় ম্যাজিক ফিগার, ৩৬ ছুঁয়ে ফেলল কংগ্রেস। যদিও সরকারের স্থায়িত্বের বিষয়টি লক্ষ্য রেখে ৩ বিএসপি বিধায়কের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। রাজ্যপাল মার্গারেট আলভা জানিয়েছেন, কংগ্রেস প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলে তিনি আশ্বস্ত হয়েছেন যে ত্রিশঙ্কু বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দিতে পারবেন তাঁরা। এমতাবস্থায় পরিষদীয় নেতা নির্বাচন হলে সরকার গড়তে কংগ্রেসকে আমন্ত্রণ জানাতে তাঁর কোনও আপত্তি নেই। প্রদেশ কংগ্রেস সূত্রে জানানো হয়েছে, শনিবারই দেরাদুনে আসছে হাইকমান্ডের পর্যবেক্ষক দল। তাদের উপস্থিতিতেই হবে নেতা নির্বাচন।